অব্যয় অনিন্দ্য’র ক্যারিয়ার আড্ডাঃ বিসিএস লিখিত প্রস্তুতি – ইংরেজি

Part-A:
Reading Comprehension: 60 Marks: সিলেবাসে বলা আছে a topic relevant to our times. তাই comprehension এর passage গল্পের মত না হয়ে সমকালীন কোন টপিক নিয়ে প্রবন্ধ বা article টাইপের হবার সম্ভাবনাই বেশি। যে কোন গাইড থেকে প্রাকটিস করুন। ইন্টারমিডিয়েটের কম্প্রেহেনশনের বইতেও চলবে। তবে প্রশ্নের ধরন কিন্তু হুবহু ওই রকম হবে না। সিলেবাসে বলা আছে Thematic questions- 30 marks আর Questions related to grammar – 30 marks. তাই এখানে কি কি ধরনের প্রশ্ন হতে পারে সেটি গুরুত্বপূর্ণ।
(a) Thematic questions- 30 marks: Thematic questions মানে Short Questions, Summary (পুরো প্যাসেজটার সামারি), Topic/Heading (পুরু পেসেজ বা কোন অংশের শিরোনাম), Fill in the Gaps, Multiple Choice Question, True/False, Matching ইত্যাদি
(b) Questions related to grammar – 30 marks: এখানে passage এর সাথে সংশ্লিষ্ট right form of verbs, corrections, subject-verb agreement, condition ইত্যাদি থেকে গ্রামার প্রশ্ন হবে। আগের কয়েক বছরের রিটেনের গ্রামার প্রশ্ন দেখে রাখুন।
.
Summary-20 marks: কোন প্যাসেজের সামারি সেটির তিন ভাগের এক ভাগের চেয়ে কিছুতেই বেশি নয়। ৩/৪/৫ টা বাক্যেই শেষ হবার কথা। সময় নিয়ে করুন। কয়েকবার পড়ে মূল থিম বুঝে লিখতে হবে। একটি বাক্যও যেন মূল প্যাসেজের কোন বাক্যের সাথে হুবহু মিলে না যায়। কোন উদাহরণ দেয়া যাবে না। সামারিতে ২০ নম্বর। তাই সময় পেলে একবার রাফ করে পরে ফাইনাল করতে পারেন।
.
Letter to the editor: একটা passage দেয়া থাকবে, সেটি অনুযায়ী পত্রিকার সম্পাদকের কাছে চিঠি লিখতে হবে। চিঠির নিয়ম মেনে লিখুন। সাথে পত্রিকায় প্রকাশের জন্য যদি আর্টিকেল দিতে হয়, সেটি একটু সুন্দর ইংরেজিতে, নির্ভুল গ্রামার ও বানানে লিখতে চেষ্টা করুন।
.
Part-B:
Essay – 50 Marks: অনেক নম্বর। আবার word limit আছে। শুরু আর শেষে অবশ্যই একটু সুন্দর বাক্য লিখতে চেষ্টা করুন। একটু সাহিত্যিক ভাষা হলে ভালো হয়। ইংরেজিতে সাহিত্যিক ভাষা আনা ইংরেজী সাহিত্যের ছাত্র ছাড়া অন্যদের পক্ষে সত্যিই দূরহ। এজন্য সবচেয়ে সহজ উপায় হল কিছু নতুন Vocabulary শুরুতে আর শেষে ব্যবহার করা। প্রত্যেকের কিছু শব্দসেট আছে, ওগুলোই সে ঘুরে ফিরে ব্যবহার করে। নিজের এই শব্দসেটটাকে উন্নত করা যায় মাত্র ৫০ তা নতুন শব্দ ব্যবহার করে। যেমন, আমার লিখার সময় help শব্দটা অনেকবার আসে, স্বাভাবিকভাবেই আসে। তো help শব্দটা না লিখে enable, assist ইত্যাদি ব্যবহার করলে বাক্যের ওজন একটু বাড়ে। এরকম মাত্র ৫০ টা শব্দের অভ্যাস করলেই শুরুর আর শেষের বাক্যগুলি আকর্ষনীয় করা যায়। এছাড়া বেকন, বায়রণ, শেলী ইত্যাদি কবি-সাহিত্যিকদের কিছু কোটেশন, proverb শুরুতে ব্যবহার করতে পারেন। আর essay এর বডিতে তথ্য, ডেটা, সংখ্যা, টেবিল, রেফারেন্স, পত্রিকার উদ্ধৃতি যত বেশী সম্ভব ব্যবহার করুন।
শুরু আর শেষ করার জন্য সুন্দর বাক্য লিখতে যারা সমস্যা মনে করেন, তাঁরা ইন্টারমিডিয়েটের ইংরেজী বোর্ডের বইটা দেখতে পারেন। এটাতে অনেক সুন্দর সুন্দর বাক্যের ফরমেট ব্যবহার করা আছে। এমনকি কিছু চ্যাপ্টার আছে যেগুলোর সাথে অনেক রচনার টপিকও মিলে যায়। যাই হোক, টপিক মিলাতে হবে না। শুধু যে কোন ৩/৪ টা চাপ্টার মানে ৫-৬ পৃষ্টা পড়লেই দেখবেন, কিছু সুন্দর বাক্য আছে, যেগুলোর মত বাক্য আপনি রচনার শুরুতে আর শেষে দিতে পারেন। তো সেই রকম ১০টা বাক্য লিখে ফেলুন। এরপর যে কোন একটা রচনার জন্য ওই রকম বাক্য বানানোর চেষ্টা করবেন। দেখবেন উন্নতি চোখে পড়বে।
.
Translation from English into Bangla – 25 marks: অনুবাদে নম্বর Vary করে, এটাতে সময় দিন। অনুবাদের জন্য আমি রাফ করে সেটা ইচ্ছামত কাটাকুটি করে ফাইনাল করতাম। প্রথমে বড় বড় ইংরেজি বাক্যের বড় বড় বাংলা বাক্য তৈরি করুন। তারপর এই বাংলা বড় বাক্যটিকে ভেঙে যথাসাধ্য সাহিত্যিক ভাষায় ছোট ছোট বাক্য লিখে ফেলুন। আবার কেউ একটা বড় বাক্য রাখতে চাইলেও সমস্যা নেই। তবে ভাষাটা ভালো হওয়া উচিত। আগের প্রশ্ন দেখে নিজে নিজে প্রাকটিস করুন। ইংরেজি পত্রিকা দেখতে পারেন। ইংরেজী থেকে বাংলা করতে গিয়ে ২/১ টা শব্দের মানে না জানলেও ভয় পাবার কারণ নেই। এটা ভাবানুবাদ, আক্ষরিক অনুবাদ নয়। পুরো বাক্যের গঠন আর কানেক্টিং ওয়ার্ড (and, but, although, however … etc) দেখে ধারনা থেকে অনুবাদ করলে ৯০% ক্ষেত্রেই সঠিক হয়ে যায়।
.
Translation from Bangla into English – 25 marks
Bangla into English এর জন্যও রাফ করা যায়। প্রথমে যেভাবে মাথায় আসে সেভাবেই দ্রুত বাংলা থেকে ইংরেজী রাফ করে ফেলুন। এরপর কয়েকটা word পাল্টে একটু সুন্দর vocabulary দিতে পারলে লেখার মান বেড়ে যাবে। এরপর sentence structure একটু নজর দিন। যদি পর পর কয়েকটা বাক্য একই structure এর হয়ে যায়, তাহলে structure পাল্টে ফেলুন। এটা করতে পারলে অবশ্যই অনুবাদে আপনি অনেকের থেকেই এগিয়ে যাবেন।
রাফ করে লিখতে গেলে সময়ের ব্যাপারটা মাথায় রাখুন। Part-B: ১ টা essay আর ২ টা অনুবাদ করতে হবে, তাই প্লান করে লিখলে রাফ করার সময় পাবেন।
[ইংরেজিতেই সবচেয়ে বেশী নাম্বার ভেরি করে, তাই এখানে কৌশলী হতে পারলে সেরা হবার সম্ভাবনা বেড়ে যায়] .
নিরন্তর শুভকামনায়
অব্যয় অনিন্দ্য (সুজন দেবনাথ)

পোষ্টটি লিখেছেন: অব্যয় অনিন্দ্য

সুজন দেবনাথ এই ব্লগে 11 টি পোষ্ট লিখেছেন .

সুজন দেবনাথ ২৮ তম বিসিএস বিসিএস(পররাষ্ট্র) সহকারী সচিব,বাংলাদেশ পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *