১৫তম বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা ২০১৮ এর বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ

পঞ্চদশ বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা-২০১৮ এর আবেদন প্রক্রিয়া ০৫ ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখ বিকাল ৩টা থেকে শুরু হয়ে ২৬ ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখ সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত চলবে। চলুন জেনে নেওয়া যাক ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধন বিজ্ঞপ্তি সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য…

আবেদনের শ্রেণি বিন্যাসঃ
• স্কুল পর্যায় বলতে সহকারী শিক্ষক, শরীরচর্চা শিক্ষক, সহকারী মৌলবি, এবতেদায়ি প্রধান ও প্রদর্শক পদকে বুঝায়।
• স্কুল পর্যায়-২ বলতে ট্রেড ইন্সট্রাক্টর, জুনিয়র মৌলবি, জুনিয়র শিক্ষক (সাধারণ) ও এবতেদায়ি ক্বারী পদ বুঝায়।
• কলেজ পর্যায় বলতে প্রভাষক/ইন্সট্রাক্টর (টেক)/ইন্সট্রাক্টর (নন-টেক) পদকে বুঝায়।

এক নজরে ১৫তম বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা ২০১৮:

  • অনলাইনে আবেদন শুরুর তারিখঃ ০৫ ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখ বিকাল ৩টা।
  • অনলাইনে আবেদন ও আবেদনপত্র জমাদানের শেষ তারিখঃ ২৬ ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখ সন্ধ্যা ৬টা।
  • টেলিটক এর মাধ্যমে আবেদন ফি জমা দেওয়ার সময়সীমাঃ ২৯ ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখ সন্ধ্যা ৬টা।
  • আবেদন ফিঃ ৩৫০/=
  • ১৫ তম শিক্ষক নিবন্ধনের বিজ্ঞপ্তি ডাউনলোড

সিলেবাসঃ স্কুল লেভেল সিলেবাস ডাউনলোডস্কুল লেভেল ২ সিলেবাস ডাউনলোড, কলেজ লেভেল সিলেবাস ডাউনলোড

আবেদনের পদ্ধতিঃ
• আবেদন করার জন্য ntrca.teletalk.com.bd ওয়েবসাইট ওপেন করতে হবে।
• প্রথমে পদ নির্বাচন করতে হবে।
• আবেদনের সময় লিখিত পরীক্ষার ঐচ্ছিক বিষয় ও পরীক্ষাকেন্দ্র নির্বাচন করতে হবে ।
• তবে যেহেতু উপজেলা ভিত্তিক মেধা তালিকা প্রকাশ করা হবে সেহেতু কোন অবস্থায় স্থায়ী ঠিকানা পরিবর্তন করা যাবে না।
• ৩০০ বাই ৩০০ পিক্সেল আকারের রঙিন ছবি এবং ৩০০ বাই ৮০ পিক্সেল আকারের স্ক্যান করা স্বাক্ষর আপলোড করতে হবে ।
• অনলাইন আবেদন ফরম নির্ভুলভাবে পূরণ করতে হবে।
• আবেদনপত্রে সাবমিটকৃত মোবাইল নম্বরটিতে পরবর্তীতে এসএমএস প্রেরণ করা হবে। এজন্য অবশ্যই মোবাইল নম্বরটি স্থায়ী ও ব্যবহার যোগ্য হতে হবে।
• আবেদনপত্র সাবমিটের পর দেওয়া হবে ইউজার আইডিসহ অ্যাপ্লিকেন্টস কপি। অ্যাপ্লিকেন্টস কপি ডাউনলোড ও করতে হবে।
• অ্যাপ্লিকেন্টস কপি প্রিন্ট করে সংরক্ষণ করতে হবে। নিয়োগের সময় প্রয়োজন হতে পারে।

আবেদন ফি পরিশোধঃ 

আবেদন করার পর ৭২ ঘণ্টার মধ্যে টেলিটক প্রিপেইড সিমের মাধ্যমে এসএমএস-এ পরীক্ষা ফি বাবদ ৩৫০ টাকা জমা দিতে হবে। আবেদনপত্র ডাউনলোড করার পর উক্ত আবেদন ফরমে প্রাপ্ত ইউজার আইডি ব্যবহার করে নিন্মের দুটি পদ্ধতিতে এসএমএস করতে হবে।

১ম এসএমএসঃ NTRCA <space> user ID & send to 16222

ফিরতি এসএমএস এ PIN সহ ফিরতি একটি এসএমএস আসবে।

২য় এসএমএসঃ NTRCA <space> Yes <space> PIN & send 16222.

মোবাইলের ব্যালেন্স থেকে ৩৫০ টাকা কেটে ফিরতি এসএমএসে কেটে নিবে।

এসএমএস এর মাধ্যমে মাধ্যমে ইউজার আইডি / সিরিয়াল/ পিন নম্বর পুনরদ্ধার করার পদ্ধতিঃ

ইউজার আইডি জানা থাকলেঃ

 NTRCA<space>HELP<space>USER<space>USER ID & send to 16222.

পিন নম্বর জানা থাকলেঃ

 NTRCA<space>HELP<space>PIN<space>PIN NO. & send to 16222.

প্রবেশপত্রঃ
• মোবাইলে এসএমএস-এ User ID এবং Password জানিয়ে দেওয়া হবে, পরবর্তী ধাপের জন্য এটি সংরক্ষণ করতে হবে। প্রাপ্ত User ID এবং Password ব্যবহার করে প্রিলিমিনারি পরীক্ষার প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে হবে।
• প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীরা লিখিত পরীক্ষার জন্য মোবাইলে এসএমএস পাওয়ার পর অনুরুপ ভাবে User ID এবং Password ব্যবহার করে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে হবে।
• লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মৌখিক পরীক্ষার সময় ও স্থান এসএমএস-এর মাধ্যমে অবহিত করবে।

পরীক্ষার নিয়ম বা পদ্ধতিঃ
• প্রথমে ১০০ নম্বরের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা নেওয়া হবে। পরীক্ষা হবে এমসিকিউ বা বহু নির্বাচনী পদ্ধতিতে, সময় ১ ঘণ্টা। বাংলা, ইংরেজি, গণিত ও সাধারণ জ্ঞানের প্রত্যেক অংশ থেকে ২৫টি করে প্রশ্ন আসবে। প্রতিটি সঠিক উত্তরের জন্য বরাদ্দ ১ নম্বর, প্রত্যেক ভুল উত্তরের জন্য কাটা যাবে ০.৫০ নম্বর। পাস করতে হলে কমপক্ষে ৪০ নম্বর পেতে হবে।
• প্রিলিমিনারি পরীক্ষা বিষয় ও নম্বর বন্টনঃ
০১ বাংলা-২৫
০২ ইংরেজী-২৫
০৩ সাধারণ গণিত-২৫
০৪ সাধারণ জ্ঞান-২৫
মোটঃ ১০০

প্রিলিমিনারি পরীক্ষার সময়সূচীঃ

স্কুল ও স্কুল ২ঃ এপ্রিল ২০১৯ এ অনুষ্ঠিত হতে পারে।

কলেজঃ এপ্রিল ২০১৯ এ অনুষ্ঠিত হতে পারে।

প্রিলিমিনারি পরীক্ষার কেন্দ্রসমূহঃ
• প্রার্থীকে অবশ্যই আবেদনপত্রে উল্লেখিত কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে হবে। কোন ভাবে পরীক্ষার কেন্দ্র পরিবর্তন করা যাবেনা।
• মোট ২০টি জেলা শহর যশোর, খুলনা, দিনাজপুর, রংপুর, বগুড়া, রাজশাহী, পাবনা, কুষ্টিয়া, জামালপুর, ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল, ঢাকা, ফরিদপুর, কুমিল্লা, নোয়াখালী, চট্রগ্রাম, বরিশাল, পটুয়াখালী, সিলেট ও রাঙ্গামাটিতে প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের হার্ড কপি জমাদানঃ
• প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের এসএমএস-এর মাধ্যমে হার্ড কপি পাঠানোর তারিখ ও সময় জানানো হবে।
• নির্ধারিত তারিখ ও সময়ের মধ্যে নিন্মের ঠিকানায় হার্ড কপি ডাক অথবা কুরিয়ারের মাধ্যমে পাঠাতে হবে।
• খামের ওপর ‘পঞ্চদশ শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার আবেদনপত্র’ লিখতে হবে।

প্রাপক,
জিপিও বক্স নম্বর-১০৩,
ঢাকা-১০০০

প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসমূহঃ
• ডাউনলোডকৃত আবেদন কপি।
• শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্র।স্নাতক (পাস বা সম্মান) পর্যায়ের নম্বরপত্র।
• নাগরিকত্ব সনদ।
• জাতীয় পরিচয়পত্র।
• প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের প্রশিক্ষণ সনদ।
• সহকারী শিক্ষক পদে আবেদনকারীদের অনলাইনে আবেদনের সময় উল্লিখিত ঐচ্ছিক বিষয়ের সপক্ষে প্রমাণ হিসেবে স্নাতক পর্যায়ের প্রবেশপত্র।

লিখিত পরীক্ষার পদ্ধতিঃ
যাচাই-বাছাই শেষে যোগ্য প্রার্থীরা লিখিত পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে । আবেদনের সময় প্রার্থীর নির্বাচিত ঐচ্ছিক বিষয়ে ১০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা হবে। সময় ৩ ঘণ্টা। লিখিত পরীক্ষায়ও পাস নম্বর ৪০। প্রিলিমিনারি ও লিখিত পরীক্ষার সিলেবাস পাওয়া যাবে ওয়েবসাইটে।

লিখিত পরীক্ষার সময়সূচীঃ

স্কুল ও স্কুল ২ঃ ঘোষণা হয়নি।

কলেজঃ ঘোষণা হয়নি।

লিখিত পরীক্ষার কেন্দ্রসমূহঃ
খুলনা, রাজশাহী, ঢাকা, রংপুর, চট্রগ্রাম, বরিশাল, সিলেট, ময়মনসিংহ

মৌখিক পরীক্ষার পদ্ধতিঃ
নম্বরের ভিত্তিতে মেধাতালিকা লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীরা মৌখিক পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন। মৌখিক পরীক্ষার জন্য নির্বাচিত প্রার্থীদের এসএমএসের মাধ্যমে সময় জানিয়ে দেওয়া হবে। নির্ধারিত তারিখে সঙ্গে আনতে হবে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র। লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে তৈরি করা হবে উপজেলা, জেলা ও জাতীয় মেধাতালিকা।

অন্যান্য তথ্যঃ
• শিক্ষাগত যোগ্যতার ক্ষেত্রে পরীক্ষায় অবতীর্ণ প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন না।
• আগে নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীরাও আবেদন করতে পারবেন।
• পরীক্ষা সংক্রান্ত যাবতীয তথ্য-০২-৪১০৩০১৩২ এবং ০২-৪১০৩০১২৮ নম্বর থেকে জানা যাবে।

পঞ্চদশ বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা ২০১৮ এর বিজ্ঞপ্তি 

উল্লেখ্য, বেসরকারি স্কুল-কলেজে শিক্ষক নিয়েগের জন্য ২০০৫ সাল থেকে এনটিআরসিএ এ পরীক্ষা নেওয়া শুরু করে।

আগে একই দিন একসঙ্গে এক ঘণ্টা এমসিকিউ ও তিন ঘণ্টার লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হলেও দ্বাদশ শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা থেকে এমসিকিউ ও লিখিত পরীক্ষা আলাদাভাবে নিচ্ছে এনটিআরসিএ।

পোষ্টটি লিখেছেন: আল মামুন মুন্না

আল মামুন মুন্না এই ব্লগে 589 টি পোষ্ট লিখেছেন .

আল মামুন মুন্না, বাংলাদেশের প্রথম শিক্ষা বিষয়ক বাংলা কমিউনিটি ব্লগ সাইট "লেখাপড়া বিডি"র প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক হিসেবে নিয়োজিত আছেন। সম্প্রতি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন যশোর সরকারী এম. এম. কলেজ থেকে ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিষয় নিয়ে বি.বি.এ অনার্স সম্পন্ন করে আজম খান সরকারী কমার্স কলেজে এমবিএ করছেন।

6 comments

  1. বেসরকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রস্তু মূলক বিষয়ে আমাকে জানাবেন। আমি একজন বিপিএড এর শিক্ষক পদে আবেদন করতে চাই।

    • JOYANTA KIRTTUNIA
      নভেম্বর 10, 2015 at 1:56 অপরাহ্ন

      আমি ১২তম শিক্ষক নিবন্ধের রেজাল্ট পেয়েছি, এখন কত দিনের মধ্যে আমি কোন নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করতে পারবো?

  2. Debabrata Sikder

    টাকা ছাড়া চাকরি কিভাবে সম্ভব

  3. আমি ১২তম শিক্ষক নিবন্ধের রেজাল্ট পেয়েছি, এখন কত দিনের মধ্যে আমি কোন নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করতে পারবো?

  4. মহাসিন

    ভাই ১৩তম শিক্ষক নিবন্দন এর ইবতেদায়ী প্রধান প্রশ্ন পাওয়া জাবে দিলে খুব উপকৃত হব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *