শাবিপ্রবির ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের নবীনবরণ অনুষ্ঠিত

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীদের নবীনবরণ অনুষ্ঠান হয়েছে।

২৮ মার্চ শনিবার সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় অডিটোরিয়ামে এ নবীনবরণ অনুষ্ঠান হয়।

নবীনবরণ অনুষ্ঠান উদযাপন পরিষদের আহ্বায়ক প্রফেসর ড. নাজিয়া চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. আমিনুল হক ভূঁইয়া।

আমদের পেইজে লাইক দিন গ্রুপে যোগ দিন

বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ ড. ইলিয়াস উদ্দীন বিশ্বাস, শিক্ষাবিদ ও শাবিপ্রবি’র আইআইসিটি বিভাগের পরিচালক প্রফেসর ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল। orientation

জনপ্রিয় লেখক প্রফেসর ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল বলেন, তোমরা অনেক ভাগ্যবান যে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মত একটি ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে পেরেছো। এটা ভাবার কোন অবকাশ নেই তোমরা তোমাদের কাঙ্ক্ষিত বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে পারনি। Nobinboron

তিনি আরো বলেন, শাবি হচ্ছে ইউনিক বিশ্ববিদ্যালয়। এখানে পড়াশোনা করলে অবশ্যই তোমাদের সফলতা আসবে।

তোমাদেরকে কেবল ক্লাসরুমে থাকলে হবে না ক্লাসরুমের বাইরেও মনোনিবেশ করতে হবে। ক্লাসরুম এবং ক্লাসরুমের বাইরের সমন্বয় করেই এগিয়ে যেতে হবে। শাবিতে কাউকে রোবট কিংবা ড্রোন বানানোর শিক্ষা দেয়া হয়নি। তবুও আমাদের ছেলেরা তা আবিষ্কার করেছে। প্রছণ্ড ইচ্ছাশক্তির কারণেই এটা সম্ভব হয়েছে।

শাবিতে ছাত্রদের সঙ্গে শিক্ষকদের সম্পর্ক অনেক ভালো। তাই এখানে পরাশোনার পরিবেশও অনেক ভালো।

শাবিতে তোমরা কম টাকায় পড়াশোনা করতে এসেছো। তাই বলে এই ভেবোনা তোমাদের বন্ধুরা বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দামি ডিগ্রি নিয়ে নিচ্ছে। সরকার আমাদের পেছনে প্রতিবছর কোটি কোটি টাকা খরচ করে। তোমাদের জন্যই এ খরচ করা হয়। আশা করি তোমরা এ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভালো থাকবে।vc-sust

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. মো. আমিনুল হক ভূঁইয়া ছাত্রছাত্রীদের উত্তাল মার্চের অভিবাদন জানিয়ে বলেন, তোমরা ভাগ্যবান। পরিবারের গণ্ডির বাইরে থেকে তোমাদের স্বাধীন জীবন শুরু হলো। যারা এ স্বাধীনতার সদ্ব্যবহার করবে তারাই সফল হবে।

শিক্ষাবর্ষ ২০১৪-১৫ এর ভর্তি কমিটির সভাপতি প্রফেসর ড. নাজিয়া চৌধুরী স্বাগত বক্তব্যে জানান, এবার মোট ১৪২২ জন ছাত্রছাত্রী ভর্তি হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োকেমেস্ট্রি বিভাগের প্রভাষক খোন্দকার আতকিয়া ফারিয়ার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের পরিচিতি পর্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ও ডিন’রা নিজ নিজ অনুষদের বিভাগীয় প্রধান ও দপ্তর প্রধানদের পরিচয় করিয়ে দেন।

অনুষ্ঠানে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে বক্তব্য রাখেন ওরিয়েন্টেশন কমিটির সদস্য সচিব রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ইশফাকুল হোসেন।
orientation-1
নবাগত ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে চৌধুরী জুনায়েদ হাসনাইন ও উম্মে সুমাইয়া জান্নাত তাদের অনুভূতি ব্যক্ত করে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন।

সৌজন্যেঃ ক্যাম্পাস লাইভ ও বাংলানিউজ

পোষ্টটি লিখেছেন: লেখাপড়া বিডি ডেস্ক

লেখাপড়া বিডি ডেস্ক এই ব্লগে 842 টি পোষ্ট লিখেছেন .

Ads by Wizards

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।