অফিস ও সংস্থাসমূহের সরকারি ছুটির তালিকা ২০১৯ জেনে নিন এখান থেকে

২০১৯ সালের বাংলাদেশের সকল সরকারি ও আধা-সরকারি অফিস এবং স্বায়ত্বশাসিত ও আধা-স্বায়ত্বশাসিত সংস্থাসমূহের ছুটির তালিকা নিচে তুলে দেওয়া হলোঃ

যেসব ছুটি চাঁদ দেখার ওপর নির্ভরশীল, সেগুলোতে তারকা (*) চিহ্ন দেওয়া হয়েছে।

সাধারণ ছুটি

২১ ফেব্রুয়ারি (৯ ফাল্গুন), বৃহস্পতিবার – আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস।
১৭ মার্চ (৩ চৈত্র), রবিবার – জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন।
২৬ মার্চ (১২ চৈত্র), মঙ্গলবার – স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস।
০১ মে (১৮ বৈশাখ), বুধবার – মে দিবস।
১৮ মে (০৪ জ্যৈষ্ঠ), শনিবার – বুদ্ধ পূর্ণিমা (বৈশাখী পূর্ণিমা)।
৩১ মে (১৭ জ্যৈষ্ঠ), শুক্রবার – জুমাতুল বিদা।
*০৫ জুন (২২ জ্যৈষ্ঠ), বুধবার – ঈদ-উল-ফিতর।

* ১২ আগস্ট (২৮ শ্রাবণ), সোমবার – ঈদুল আজহা।

১৫ আগস্ট (৩১ শ্রাবণ), বৃহস্পতিবার – জাতীয় শোক দিবস।

২৩ আগস্ট (০৮ ভাদ্র), শুক্রবার – শুভ জন্মাষ্টমী।

০৮ অক্টোবর (২৩ আশ্বিন), মঙ্গলবার – দুর্গাপূজা (বিজয়া দশমী)।
*১০ নভেম্বর (২৫ কার্তিক), রবিবার – ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী (সা.)।
১৬ ডিসেম্বর (০১ পৌষ), সোমবার – বিজয় দিবস।
২৫ ডিসেম্বর (১০ পৌষ), বুধবার – যিশু খ্রিস্টের জন্মদিন (বড়দিন)।

মোট= ১৪ দিন (৩টি সাপ্তাহিক ছুটির দিনসহ)

নির্বাহী আদেশে সরকারি ছুটি

১৪ এপ্রিল (০১ বৈশাখ), রবিবার – বাংলা নববর্ষ।
*২২ এপ্রিল (০৮ বৈশাখ), রবিবার – শব-ই-বরাত।
*০২ জুন (১৯ জ্যৈষ্ঠ), রবিবার – শব-ই-ক্বদর।
*০৪ ও ০৬ জুন (২১ ও ২৩ জ্যৈষ্ঠ), মঙ্গলবার ও বৃহস্পতিবার – ঈদ-উল-ফিতরের ঈদের পূর্বের ও পরের দিন।
*১১ ও ১৩ আগস্ট (২৭ ও ২৯ শ্রাবণ) রবিবার ও মঙ্গলবার – ঈদ-উল-আজহার পূর্বের ও পদের দিন।
*১০ সেপ্টেম্বর (২৬ ভাদ্র), মঙ্গলবার – পবিত্র আশুরা।

মোট = ০৮ দিন (সাপ্তাহিক ছুটির ব্যতিত)

ঐচ্ছিক ছুটি (মুসলিম পর্ব)

*০৪ এপ্রিল (২১ চৈত্র), বৃহস্পতিবার – শব-ই-মিরাজ।
*০৭ জুন (২৪ জ্যৈষ্ঠ), শুক্রবার – ঈদ-উল-ফিতর (ঈদের পরের দ্বিতীয় দিন)।
*১৪ আগস্ট (৩০ শ্রাবণ), বুধবার – ঈদ-উল-আযহা (ঈদের পরের দ্বিতীয় দিন)।
*২৩ অক্টোবর (০৭ কার্তিক), বুধবার – আখেরি চাহার সোম্বা।

*০৯ ডিসেম্বর (২৪ অগ্রহায়ণ), সোমবার – ফাতেহা-ই-ইয়াজদাহম।

মোট = ০৫ দিন (১টি সাপ্তাহিক ছুটির দিনসহ)

ঐচ্ছিক ছুটি (হিন্দু পর্ব)

১০ ফেব্রুয়ারি (২৮ মাঘ), রবিবার – শ্রী শ্রী সরস্বতী পূজা।
০৪ মার্চ (২০ ফাল্গুন), সোমবার – শ্রী শ্রী শিবরাত্রি ব্রত।

২১ মার্চ (০৭ চৈত্র), বৃহস্পতিবার – শুভ দোলযাত্রা।
০৩ এপ্রিল (২০ চৈত্র), বুধবার – শ্রী শ্রী হরিচাঁদ ঠাকুরের আবির্ভাব।
২৮ সেপ্টেম্বর (১৩ আশ্বিন), বুধবার – শুভ মহালয়া।
০৭ অক্টোবর (২২ আশ্বিন), সোমবার – শ্রী শ্রী দুর্গা পূজা (মহানবমী)।
১৩ অক্টোবর (২৮ আশ্বিন), রবিবার – শ্রী শ্রী লক্ষ্মী পূজা।
২৭ অক্টোবর (১১ কার্তিক), রবিবার – শ্রী শ্রী শ্যামা পূজা।

মোট = ০৮ দিন (১টি সাপ্তাহিক ছুটির দিনসহ)

ঐচ্ছিক ছুটি (খ্রিস্টান পর্ব)

০১ জানুয়ারি (১৮ পৌষ), মঙ্গলবার – ইংরেজি নববর্ষ।
০৬ মার্চ (২২ ফাল্গুন), বুধবার – ভষ্ম বুধবার।
১৮ এপ্রিল (০৫ বৈশাখ), বৃহস্পতিবার – পুণ্য বৃহস্পতিবার।
১৯ এপ্রিল (০৬ বৈশাখ), শুক্রবার – পুণ্য শুক্রবার।
২০ এপ্রিল (০৭ বৈশাখ), শনিবার – পুণ্য শনিবার।
২১ এপ্রিল (০৮ বৈশাখ), রবিবার – ইস্টার সানডে।
২৪ ও ২৬ ডিসেম্বর (০৯ ও ১১ পৌষ), মঙ্গলাবার ও বৃহস্পতিবার – যিশু খ্রিস্টের জন্মোৎসব (বড়দিনের আগের ও পরের দিন)।

মোট = ০৮ দিন (২টি সাপ্তাহিক ছুটির দিনসহ)

ঐচ্ছিক ছুটি (বৌদ্ধ পর্ব)

*১৯ ফেব্রুয়ারি (০৭ ফাল্গুন), মঙ্গলবার – মাঘী পূর্ণিমা।
১৩ এপ্রিল (৩০ চৈত্র), শনিবার – চৈত্র সংক্রান্তি।
*১৬ জুলাই (০১ শ্রাবণ), মঙ্গলবার – আষাঢ়ী পূর্ণিমা।
*১৩ সেপ্টেম্বর (২৯ ভাদ্র), শুক্রবার – মধু পূর্ণিমা (ভাদ্র পূর্ণিমা)।
*১৩ অক্টোবর (২৮ আশ্বিন), রবিবার – প্রবারণা পূর্ণিমা (আশ্বিনী পূর্ণিমা)।

মোট = ০৫ দিন (২টি সাপ্তাহিক ছুটির দিনসহ)

* চাঁদ দেখা বা চান্দ্রতিথীর উপর নির্ভরশীল

ঐচ্ছিক ছুটি (বৈসাবি ও পার্বত্য চট্টগ্রামের অন্যান্য ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সমূহের অনুরূপ উৎসব)

১২ ও ১৫ এপ্রিল (২৯ চৈত্র ও ০২ বৈশাখ ), শুক্রবার ও সোমবার – পার্বত্য চট্টগ্রাম এলাকার ও এর বাহিরে কর্মরত ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর অন্তর্ভুক্ত কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বৈসাবি ও পার্বত্য চট্টগ্রামের অন্যান্য ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীদের অনুরূপ সামাজিক অনুষ্ঠান।

যেকোনো সম্প্রদায়ের একজন কর্মচারীকে তার নিজ ধর্ম অনুযায়ী বছরে মোট তিনদিনের মাত্রা পর্যন্ত ঐচ্ছিক ছুটি ভোগ করার অনুমতি দেওয়া যেতে পারে এবং এ ব্যাপারে প্রত্যেক কর্মচারীকে বছরের শুরুতে নিজ ধর্ম অনুযায়ী নির্ধারিত তিনদিনের ঐচ্ছিক ছুটি ভোগ করার ইচ্ছা উপযুক্ত কর্তৃপক্ষ কর্তৃক অনুমোদন করে নিতে হবে। সাধারণ ছুটি, নির্বাহী আদেশে সরকারি ছুটি ও সাপ্তাহিক ছুটির সঙ্গে যোগ করে ঐচ্ছিক ছুটি ভোগ করার অনুমতি দেওয়া যেতে পারে।

সরকারি ছুটির তালিকা ২০১৯ pdf

পোষ্টটি লিখেছেন: আল মামুন মুন্না

আল মামুন মুন্না এই ব্লগে 616 টি পোষ্ট লিখেছেন .

আল মামুন মুন্না, বাংলাদেশের প্রথম শিক্ষা বিষয়ক বাংলা কমিউনিটি ব্লগ সাইট "লেখাপড়া বিডি"র প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক হিসেবে নিয়োজিত আছেন। সম্প্রতি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন যশোর সরকারী এম. এম. কলেজ থেকে ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিষয় নিয়ে বি.বি.এ অনার্স ও আজম খান সরকারী কমার্স কলেজ থেকে এমবিএ করছেন।

2 comments

  1. আজ এই তালিকটা থেকে খুব উপকার হলো, নেট থেকে সহজে কোন হেল্প পাইনা, আজ পেলাম। ধন্যবাদ এডমিন। ভালো থাকবেন।

  2. শাহ্ মোহাম্মদ এনামুল কবির

    উপকৃত হয়েছি। ধন্যবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *