এইচএসসির ফরম পূরণের আংশিক অর্থ ফেরত পাচ্ছেন শিক্ষার্থীরা

গত বছরের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফরম ফিলাপের অব্যবহৃত অর্থ ফেরত পাচ্ছেন শিক্ষার্থীরা। ইতোমধ্যে অর্থ ছাড়ের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। শিগগিরই এ সংক্রান্ত চিঠি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে পাঠানো হবে।

মঙ্গলবার সমকালকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর নেহাল আহমেদ।

তিনি বলেন, আন্তঃবোর্ডের বৈঠকে অর্থ ছাড়ের বিষয়টি চূড়ান্ত করা হয়েছে। ইতোমধ্যে শিক্ষাবোর্ডগুলো এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করেছে। এখন আদেশের চিঠি ও টাকার চেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে পাঠানো হবে। কলেজগুলো ব্যাংকে চেক জমা দিয়ে টাকা উত্তোলন করবেন। এর পর সেই টাকা শিক্ষার্থীদের মাঝে বিতরণ করা হবে।

প্রফেসর নেহাল আহমেদ বলেন, ব্যাংকগুলোতে চেক জমা দেয়ার পর অর্থ ছাড়া হতে কিছুটা সময় লাগতে পারে। তবে আশা করছি আগামী ৮-১০ দিনের মধ্যে পুরো প্রক্রিয়া শেষ হবে। ব্যাংক অর্থ ছাড় করার সঙ্গে সঙ্গে শিক্ষার্থীরা টাকা পেয়ে যাবেন।

গত ৩১ জানুয়ারি এইচএসসি পরীক্ষার অব্যবহৃত অর্থ ফেরত দেয়ার বিষয়ে আদেশ জারি করে আন্তঃশিক্ষা সমন্বয় বোর্ড। আদেশে বলা হয়, বিজ্ঞানের নিয়মিত শিক্ষার্থীরা ১ হাজার ৬৫ টাকা ফেরত পাবেন। ব্যবসায় শিক্ষা শাখা ও মানবিক বিভাগের নিয়মিত শিক্ষার্থীরা ফেরত পাবেন ৬১৫-৬২৫ টাকা করে।

লেখাপড়াবিডি/

পোষ্টটি লিখেছেন: মোঃ মিলন ইসলাম

এই ব্লগে 391 টি পোষ্ট লিখেছেন .

মোঃ মিলন ইসলাম এই ব্লগের একজন ব্লগার। এই সাইটে গুরুত্বপূর্ণ কিছু পোষ্ট তুলে ধরেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *