Advertisements

বাংলাদেশের ইতিহাসে একজন মানুষই বিসিএসে দুইবার প্রথম হয়েছেন । কে সেই ব্যক্তি?

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সদ্য পাশ করেছে বেরিয়েছে ছেলেটি । পাশ করেই অংশ নিলেন বিসিএস পরীক্ষায় । নিজের পরিশ্রম আর একাগ্রতার ফল হিসেবে প্রথম হন (১০ম) বিসিএস পরীক্ষায় । কিন্তু সবাইকে অবাক করে প্রথম হয়েও সেই ছেলেটি চাকরিতে যোগদান করলো না । পরবর্তীতে ১২তম বিসিএস পরীক্ষা চলে এলো এবং সেই ছেলে আবারও বিসিএস ভাইভাতে উপস্থিত ! ভাইভা বোর্ডের উপস্থিত সবাই অবাক হয়ে দেখল এই ছেলে ১০ম বিসিএস পরীক্ষায় প্রথম মেধাস্থানে ছিল ।

বোর্ড কর্মকর্তারা জিজ্ঞেস করলেন, “জনাব, নাজিম উদ্দিন, আপনি কেন আগেরবার প্রথম হয়েও সিভিল সার্ভিসে যোগদান করলেন না ?”

উত্তরে নাজিম উদ্দিন জানালেন, ‘আগেরবার বিসিএস পরীক্ষায় প্রথম হওয়ার পরেই তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে লেকচারার হিসেবে যোগদান করেন, তাই আর সিভিল সার্ভিসে যোগদান করেন নি ।
তারপর বোর্ড কর্মকর্তারা জিজ্ঞেস করলেন, “এবার কেন আপনি আবার বিসিএস পরীক্ষা দিয়েছেন ?”
উত্তরে নাজিম উদ্দিন যা জানালেন তাতে বোর্ডকর্তাদের চক্ষু চড়কগাছ । নাজিম উদ্দিনের সরল উত্তর, “আসলে আমি একটু যাচাই করে দেখলাম, আমার সেই মেধা আর প্রস্তুতি ঠিক আছে কিনা” ।

এতক্ষণ যা পড়লেন তার কিছুই গল্প নয়, বাস্তব সত্যি । আর সেই নাজিম উদ্দিন হলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস্ বিভাগের প্রফেসর নাজিম উদ্দিন ভূঁইয়া, এফসিএমএ ।

আর হ্যাঁ, তিনি দ্বিতীয় বারেও বিসিএস পরীক্ষায় প্রথম হন । কিন্তু যোগদান করেননি, পেশা হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকতাকেই বেছে নেন ।

বাংলাদেশের ইতিহাসে এই একজন মানুষই বিসিএসে দুইবার প্রথম হয়েছেন কিন্তু তিনি নিজেকে সেলিব্রিটি ঘোষণা করেননি । যাকে-তাকে তাচ্ছিল্য করেননি । কারণ তিনি জানতেন, “যিনি যত বেশি জ্ঞানী, তিনি তত বেশি বিনয়ী । “

পোষ্টটি লিখেছেন: sourovbd

এই ব্লগে 3 টি পোষ্ট লিখেছেন .

Advertisements

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *