জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম-কানুন

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম-কানুনঃ

  • ১। ১০০ এর মধ্যে ৪০ পেলে পাশ। লিখিত ৮০ নম্বরের মধ্যে ৩২ এবং ইনকোর্স ২০ নম্বরের মধ্যে ৮। [লিখিত পাশ করার পর ইনকোর্স যুক্ত করা হয়ে থাকে সাধারনত।]
  • ২। ৬০ উপরে নাম্বার পেলে অর্থাৎ B গ্রেড পেলে ফার্স্ট ক্লাস।
  • ৩। F/D/C গ্রেড পেলে পরের বছর ইমপ্রুভ দিয়া যায়। কিন্তু কোনো সাবজেক্টে যত বার F থাকবে এবং রেজিঃকার্ডের মেয়াদ থাকবে ততবার ইমপ্রুভ দেয়া যাবে। [D/C প্রাপ্ত গ্রেডে ইমপ্রুভ পরের বছর দেয়া যাবে কিন্তু তারপর আর না।]
  • ৪। প্রতি ইয়ারে যেকোন ৩টি বিষয়ে পাশ করলে পরের বছর প্রোমটেড হতে পারবে।
  • ৫। ১টি বিষয়ে অনুপস্থিত থেকে বাকি ৫ টা বিষয়ে পাশ করতে পারলে কন্ডিশনাল প্রোমোট হবে। তবে পরের বছর ঐ ১টা বিষয়ে অবশ্যই পরিক্ষা দিতে হবে। [কিন্তু ১টা বিষয়ে অনুপস্থিত +১ বা একের অধিক বিষয়ে ফেল =নট প্রোমোটেড।]
  • ৬। D/C প্রাপ্ত বিষয়ের মধ্যে সর্বোচ্চো ২টি বিষয়ে ইমপ্রুভ দেয়া যাবে। অর্থাৎ যদি ২ এর অধিক D/C গ্রেড থাকে তবে যেকোন ২টি বিষয়ে ইমপ্রুভ দেয়া যাবে।
  • ৭। কলেজ যদি ইনকোর্স মার্ক প্রেরন করতে ভুলে যায় বা না দেয় তবে শিক্ষার্থীর রেজাল্ট ঝুলে থাকবে।
  • ৮। ইমপ্রুভ দিলে সার্টিফিকেটে কোনো প্রকার ইরেগুলার লেখা থাকবে না। যে বছর যে সাবজেক্ট ইমপ্রুভ দিবে শুধু সেই এডমিট কার্ডে ইমপ্রুভমেন্ট লেখা থাকবে মাত্র।
  • ৮। F/D/C প্রাপ্ত বিষয়ে পরিক্ষা যে মার্ক পাবে সে মার্কই দেয়া হবে। [পূর্বে F বিষয়ে ইমপ্রুভমেন্ট দিলে B+ এর বেশি দিত না।বর্তমান এই নিয়ম বাতিল। যা লিখে তুলতে পারবে তাই দেয়া হবে।]
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

পোষ্টটি লিখেছেন: Mohammad Khalilur Qaderi

Mohammad Khalilur Qaderi এই ব্লগে 9 টি পোষ্ট লিখেছেন .

মুহাম্মদ খলিলুর কাদেরী গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার বরমী ইউনিয়নে জন্মগ্রহণ করেন, সে এখন জতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এর অন্তর্ভূক্ত ভাওয়াল বদরে আলম সরকারি কলেজ, গাজীপুর। হতে অনার্স (বাংলা বিভাগ) এর ছাত্র...

আমদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন পেইজে লাইক দিন গ্রুপে যোগ দিন


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *