জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম-কানুন

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম-কানুনঃ

  • ১। ১০০ এর মধ্যে ৪০ পেলে পাশ। লিখিত ৮০ নম্বরের মধ্যে ৩২ এবং ইনকোর্স ২০ নম্বরের মধ্যে ৮। [লিখিত পাশ করার পর ইনকোর্স যুক্ত করা হয়ে থাকে সাধারনত।]
  • ২। ৬০ উপরে নাম্বার পেলে অর্থাৎ B গ্রেড পেলে ফার্স্ট ক্লাস।
  • ৩। F/D/C গ্রেড পেলে পরের বছর ইমপ্রুভ দিয়া যায়। কিন্তু কোনো সাবজেক্টে যত বার F থাকবে এবং রেজিঃকার্ডের মেয়াদ থাকবে ততবার ইমপ্রুভ দেয়া যাবে। [D/C প্রাপ্ত গ্রেডে ইমপ্রুভ পরের বছর দেয়া যাবে কিন্তু তারপর আর না।]
  • ৪। প্রতি ইয়ারে যেকোন ৩টি বিষয়ে পাশ করলে পরের বছর প্রোমটেড হতে পারবে।
  • ৫। ১টি বিষয়ে অনুপস্থিত থেকে বাকি ৫ টা বিষয়ে পাশ করতে পারলে কন্ডিশনাল প্রোমোট হবে। তবে পরের বছর ঐ ১টা বিষয়ে অবশ্যই পরিক্ষা দিতে হবে। [কিন্তু ১টা বিষয়ে অনুপস্থিত +১ বা একের অধিক বিষয়ে ফেল =নট প্রোমোটেড।]
  • ৬। D/C প্রাপ্ত বিষয়ের মধ্যে সর্বোচ্চো ২টি বিষয়ে ইমপ্রুভ দেয়া যাবে। অর্থাৎ যদি ২ এর অধিক D/C গ্রেড থাকে তবে যেকোন ২টি বিষয়ে ইমপ্রুভ দেয়া যাবে।
  • ৭। কলেজ যদি ইনকোর্স মার্ক প্রেরন করতে ভুলে যায় বা না দেয় তবে শিক্ষার্থীর রেজাল্ট ঝুলে থাকবে।
  • ৮। ইমপ্রুভ দিলে সার্টিফিকেটে কোনো প্রকার ইরেগুলার লেখা থাকবে না। যে বছর যে সাবজেক্ট ইমপ্রুভ দিবে শুধু সেই এডমিট কার্ডে ইমপ্রুভমেন্ট লেখা থাকবে মাত্র।
  • ৮। F/D/C প্রাপ্ত বিষয়ে পরিক্ষা যে মার্ক পাবে সে মার্কই দেয়া হবে। [পূর্বে F বিষয়ে ইমপ্রুভমেন্ট দিলে B+ এর বেশি দিত না।বর্তমান এই নিয়ম বাতিল। যা লিখে তুলতে পারবে তাই দেয়া হবে।]
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

পোষ্টটি লিখেছেন: Mohammad Khalilur Qaderi

Mohammad Khalilur Qaderi এই ব্লগে 9 টি পোষ্ট লিখেছেন .

মুহাম্মদ খলিলুর কাদেরী গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার বরমী ইউনিয়নে জন্মগ্রহণ করেন, সে এখন জতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এর অন্তর্ভূক্ত ভাওয়াল বদরে আলম সরকারি কলেজ, গাজীপুর। হতে অনার্স (বাংলা বিভাগ) এর ছাত্র...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *