ভুয়া Digital Bazar অনলাইন মার্কেটিং পেজের ডিজিটাল  জালিয়াতি

ভুয়া Digital Bazar অনলাইন মার্কেটিং পেজের ডিজিটাল  জালিয়াতি

মো. ইকবলা হোসেন, বশেমুরবিপ্রবি : আমি গতকাল রাত আনুমানিক ১০টায় ফেসবুক পেজে নিউজ ফিডে হঠাৎ চোখের সামনে ভেসে ওঠে একটি পেজ Digital Bazar এর একটি ঘড়ির বিজ্ঞাপন দেখতে পাই। তাদের ভিডিও এডিটিং ও বিজ্ঞাপন দেখে মুগ্ধ হয়ে হঠাৎ করে আমার কন্ট্যাক নাম্বারটি দিই। আমাকে বলা হল, পেজের অফিস থেকে আপনার সাথে যোগাযোগ করা হবে।

রাত ১০টায় হঠাৎ আমাকে ০১৭৯০৩৯০৯৬৩ নাম্বারে রানা নামক এক ব্যক্তি দ্বারা কল করেন। রানা আমাকে বলেন, ঘড়ির কুরিয়ার সার্ভিস বাবদ আপনাকে ১০০ টাকা ০১৭৫০৭৮৯৪৩০ নাম্বারে বিকাশ করতে হবে। বাকি টাকা ঘড়ি আপনার কাছে পৌঁছানোর পরে আমাদের পরিশোধ করবেন।

প্রতিদিনের ন্যায় আজ সকালেও আমি কোচিং ক্লাস করার উদ্দেশ্যে বের হই। হঠাৎ আমাকে বারবার Digital Bazar থেকে ফোন দিয়ে বিরক্ত করা হয়। আমাকে বলা হয় স্যার ঘড়িটি অনেক ভালো, আপনি স্টুডেন্ট। এই ধরনের ঘড়ি আপনাদের জন্য ব্যবহার খুবই স্বাস্থ্যসম্মত হবে। ভাবলাম বেচারা এতো করে যখন বলছে- তাই সকাল ১২টায় ০১৭৯০৩৯০৯৬৩ নাম্বারে ১০০টাকা ফ্লেক্সিলোড করি। আমাকে বলা হল, আগামী ২৪-৪৮ ঘন্টার মধ্যে আপনার ঠিকানায় অর্ডার পৌঁছে যাবে।

সারাদিন কোচিং ক্লাস নেওয়া, নিজে আবার জব কোচিং ক্লাস করে সন্ধ্যায় ক্লান্ত হয়ে রুমে ফিরে আমি ঐ নাম্বারে ফোন দিই। কিন্তু আমার ফোন ধরে কোন কথা বলছে না। আমার নাম্বার থেকে ২-৩ দিন বার ফোন দেওয়ার পর অন্য অপরিচিতি আর একটি নাম্বার দিয়ে ফোন দিয়ে অর্ডারের কথা বললে রানা সম্পূর্ণ অস্বীকার করে। তখন আমি বলি, আপনি বর্তমান সরকারের তথ্য ও প্রযুক্তি নির্ভর ডিজিটাল বাংলাদেশ ও গোয়েন্দা সংস্থার তৎপরতা এবং নাম্বার ট্রাকিং বিষয়টি যদি জেনে থাকেন তবে আশা করি অর্ডারের কথা অস্বীকার করতে পারবেন না। একটা পর্যায় কথা কাটিকাটি হলে ০১৭৯০৩৯০৯৬৩ নাম্বার থেকে আমাকে বলা হল, “যা পারিস কর।”

তখন এই ডিজিটাল জালিয়াতি এবং জনসাধারণের ভোগান্তির বিষয়টি মাথার নিয়ে আমি তাদের উরমরঃধষ ইধুধৎ পেজে কমেন্ট লিখি এভাবে, “সকলের সাবধানতার জন্য বলছি, এই পেজের এডটি সম্পূর্ণ ভুয়া এবং টাকা হাতিয়ে নেওয়ার নোংরা পরিকল্পনা। আপনারা সবাই এই পেজের ধোঁকাবাজি থেকে দূরে থাকুন ও সাথে সাথে বিষয়টি পুলিম প্রশাসন এবং গোয়েন্দা সংস্থাকে অবহিত করুন।” তৎক্ষণে আমি পুলিশ প্রশাসন এবং গোয়েন্দা সংস্থাকে ফোন দিয়ে বিষয়টি জানালে উনারা থানায় গিয়ে অভিযোগ করতে বলেন।

ঠিক তখনই হঠাৎ একটি অচেনা নাম্বার ০১৯৭০০৮৮৮৫০ থেকে আমার নাম্বারে কল আসে। রানা তখন বিষয়টি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করলে আমি আমার জায়গা থেকে যুক্তি, তর্ক এবং উপযুক্ত প্রমাণসহ বিষয়টি উপস্থাপন করলে, Digital Bazar পেজ থেকে রানা আমাকে বলে আপনার ১০০ টাকা আমি ফেরত দিচ্ছি এবং বিষয়টি সে কিছু জানে না বলে আমাকে আশ্বস্থ করে। একই ব্যক্তি বিভিন্ন নাম্বারে বিভিন্ন পরিচয়ে হাতিয়ে নিচ্ছে জনসাধারণের অর্থ।

রানার ভাষ্যমতে, তাদের পেজ থেকে তৃতীয় কোন অসৎ ব্যক্তি এক ভদ্র মহিলার কাছ থেকে ১২০০ টাকা। অন্য আরেক ব্যক্তির কাছ থেকে ১৫০০ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার কথা বলা হয়েছে। অথচ যে ব্যক্তি নতুন নাম্বার ০১৯৭০০৮৮৮৫০ দিয়ে আমার সাথে আজ রাতে ৮.৩০টায় কথা বলেন। সেই ব্যক্তির কণ্ঠ আর ০১৭৯০৩৯০৯৬৩ নাম্বারে আজ সকাল অবধি আমার সাথে কথা বলা ব্যক্তির কণ্ঠ একই রকম। যখন বিষয়টি আমি উনাকে বুঝাতে গেছি এবং কল রেকডিং এর কথা বলেছি তখন রানা (তার বলা নাম) আমাকে বলে আপনার ১০০ টাকা আমি ফ্লেক্সিলোড করে দিচ্ছি এবং সাথে সাথে রাত ৯.০৮টায় আমাকে লোড করে দেওয়া হয়।

তার কোন চাচা নাকি সিআইডি হেড অফিসে জব করে। তিনি বিষয়টি নিয়ে অন্য কাউকে না বলারও হুমকি দেন। আমি ইতোমধ্যে বিষয়টি গোয়েন্দা সংস্থাকে জানিয়েছি। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ভুক্তভোগী বলেন, এই পেজের ধোঁকায় পড়ে তিনি কিছু দিন আগে ১০০০ টাকা হারিয়েছেন।

এমন অসত্য, ভুয়া অনলাইন পেজের ধোঁকা থেকে সাধারণ মানুষ নিরাপদ থাকুক এমনই প্রত্যাশা জনসাধারণের।

ঘটনাপ্রবাহে মো. ইকবাল হোসেন, শিক্ষার্থী : বাংলা বিভাগ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, গোপালগঞ্জ-৮১০০।

পোষ্টটি লিখেছেন: MD. IQBAL HOSSAIN

এই ব্লগে 10 টি পোষ্ট লিখেছেন .

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *