রুপকথার সেই মেয়েটি

কোন একদিন যাচ্ছিলাম ঢাকা টু সিলেট। যাওয়ার পথে নজর পড়ে ছোট একটি বাড়ির উঠানে, তাকিয়ে দেখি একটি মেয়ে দাড়িয়ে আছে। আমি অবাক হয়ে তাকিয়ে আছি আমি কি দেখছি। একা ভাবতেই গাড়িটি হঠাৎ করেই বিকল হয়ে যায়। আমার সে দিকে কোন খেয়াল নেই।

হঠাৎ ড্রাইভার এসে বলল স্যার নামতে হবে,গাড়ির ইঞ্জিন ডাউন হয়েছে।

আমি বললাম বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময় সবকিছু  ঠিক আছে কিনা দেখে নাওনি কেন?

ভিতু গলায় উত্তর দিলো স্যার বাড়ি থেকে বের হওয়ার সময় ঠিকইতো ছিলো। হঠাৎ কি হলো বুঝতে পারছিনা।

আমি বললাম পাশে কোথাও মিস্ত্রি পাওয়া যায় কিনা দেখ।

ড্রাইভার বলল ঠিক আছে স্যার। এই বলে যখন ড্রাইভার চলে গেলো তখন মনে পড়লো মেয়েটির কথা দেখি মেয়ে আমার দিকে ফেলফেল করে তাকিয়ে কি যেন বলছে। আমি আশেপাশে কাউকে দেখতে না পেয়ে মেয়েটির দিকে আকর্ষিত হতে থাকলাম। হাঁটতেহাঁটতে একটি পাহাড়ের উপর উঠে যখন মেয়েটির সাথে কথা বলার চেষ্টা করছি দেখলাম মেয়েটি আমার থেকে ততই দুরে চলে যাচ্ছে আর হাসছে। আমি কিছু বুঝে উঠার আগেই ড্রাইভার ডাক দিলো স্যার গাড়ি ঠিক হয়ে গেছে। আমি দেখলাম মেয়েটি পাহাড় থেকে নিচে লাফিয়ে পড়লো। আমি ভয় পেয়ে কি করব ভেবে পাচ্ছিলামনা। এদিকে ড্রাইভার বারবার ডাকছে। আমি আর কিছু না ভেবে নিচে নেমে আসলাম।

ড্রাইভার কাছে আসতেই বলল স্যার আপনি পাহাড়ে উঠতে গেলেন কেন। আপনার তো বিপদ হতে পারতো।

আমি বললাম কিসের বিপদ?

ড্রাইভার বলল কেন আপনি জানেন না এসব পাহাড় ভালো হয়না। এখানে অনেক খারাপ কিছু বাস করে আর তারা মানুষের ক্ষতি করার চেষ্টা করে।

ড্রাইভারের কথায় কান না দিয়ে ভাবছি মেয়েটি আসলে কে ছিলো এতো অপরুপ সুন্দর মেয়ে আমি আর কখনো দেখিনি। ভাবতে ভাবতে বাড়ি পৌঁছে গেলাম।

রাতের খাবার সেরে ঘুমাতে গেলাম হঠাৎ কারো কান্নায় ঘুম ভেঙ্গে গেলো, দেখলাম পাহাড়ের সেই মেয়েটি আমার ঘরে আমার পাশে বসে কান্না করছে। আমি জিজ্ঞেস করলাম তুমি এখানে কেন তুমিতো পাহাড় থেকে পড়ে গেছিলে।

মেয়েটি বলল আমি পড়ে যাওয়ার সময় তুমিতো সেখানেই ছিলে আমাকে কেন বাঁচালে না। আমি এখন আর মানুষ নই শুধুই তোমার স্বপ্ন।

লেখক-

সবুজ আহম্মেদ

ব্লগার www.golperbhuban.ga

আরোও পড়ুন

পোষ্টটি লিখেছেন: Shobuz Ahmed

এই ব্লগে 3 টি পোষ্ট লিখেছেন .

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *