ঢাকা স্কুল অব ইকনোমিকস-এ গুণগতমান উন্নয়ক বিষয়ক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

ঢাকা স্কুল অব ইকনোমিকস-এ গুণগতমান উত্তোরত্তর উন্নয়নের জন্যে একটি সংবাদ সম্মেলন ১০ ডিসেম্বর ২০১৮ খৃষ্টাব্দে অনুষ্ঠিত হয়। এতে মূল বক্তা ছিলেন ঢাকা স্কুল অব ইকনোমিকস-এর গভর্ণিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান এবং বরেণ্য অর্থনীতিবিদ ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ।

ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ বলেন যে, দেশে উচ্চ শিক্ষার গুণগত মান বজায় রাখার জন্যে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ে নিবিড়ভাবে ছাত্র-ছাত্রীদের বিশেষ তত্ত্বাবধানে বর্তমানে পড়ানো হচ্ছে। এবছর উন্নয়ন অর্থনীতিতে স্নাতক পর্যায়ে প্রোগ্রাম চালু হয়েছে।

এ বছরের ভর্তি প্রক্রিয়া চার বছর মেয়াদী সম্পদ ও পরিবেশ অর্থনীতি এবং উন্নয়ন অর্থনীতিতে ২ শে ডিসেম্বর ২০১৮ খৃস্টাব্দ পর্যন্ত চলবে। আগামী বছর উদ্যোক্তা অর্থনীতিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুমোদনক্রমে পাঠ্যক্রম স্নাতক পর্যায়ে চালু করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

ইতোমধ্যে স্নাতক পর্যায়ে সম্পদ ও পরিবেশ অর্থনীতিতেও প্রোগ্রাম চালু হয়েছে। আর স্নাতকোত্তর পর্যায়ে উদ্যোক্তা অর্থনীতি, পরিবেশ অর্থনীতি এবং উন্নয়ন অর্থনীতির উপর তিনটি ভিন্ন প্রোগ্রাম রয়েছে। পোষ্ট গ্র্যাজুয়েটে উদ্যোক্তা অর্থনীতি এবং অর্থনীতির উপর দুটো ভিন্ন প্রোগ্রামও চালু রয়েছে। একটি অর্থনৈতিক ইনকিউরেটর স্থাপন করা হবে বলে ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ জানান।

এদিকে উদ্যোক্তা অর্থনীতির ব্যাপক চাহিদার কারণে সার্টিফিকেট কোর্স চালুর ব্যাপারটি বিবেচনাধীন। এদিকে বিশ্বভারতীর অর্থনীতি বিভাগের সাথে বিশেষ সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। ভারতের ম্যানেজমেন্ট ইন্সটিটিউট এবং থাইল্যান্ডের নারিসুয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে উদ্যোক্তা অর্থনীতির জন্যে বিশেষ সমঝোতা হয়েছে। স্নাতক পর্যায়ে উন্নয়ন অর্থনীতি এবং সম্পদ ও পরিবেশ অর্থনীতির ভর্তিপ্রক্রিয়া বর্তমানে চলছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অঙ্গীভূত প্রতিষ্ঠান হিসাবে এ প্রতিষ্ঠান দেশের উচ্চ শিক্ষার যুগোপযোগী চাহিদা মেটাতে সহায়ক ভূমিকা পালন করেছে। উদ্যোক্তা বিশেষজ্ঞ ও সমষ্টিক অর্থনীতিবিদ প্রফেসর ড. মুহম্মদ মাহবুব আলী মন্তব্য করেন যে, সামগ্রিক অর্থে উদ্যোক্তা অর্থনীতির বিকাশ দেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা সমৃদ্ধতর করবে। তিনি মত প্রকাশ করেন যুগোপযোগী শিক্ষার কোন বিকল্প নেই।

এতে হেড অব এডমিন, ডেভলপমেন্ট এন্ড একাডেমিক এ্যাফেয়ার্স, ঢাকা স্কুল অব ইকনোমিকস, জনাব মুহম্মদ সেলিম, প্রফেসর ড. রেজাই করিম খন্দকার, ড. এ কে এম নজরুল ইসলাম ও ড. নারায়ন চন্দ্র সিনহা এবং হেড অব লিঁয়াজো এন্ড সেমিনার প্রোগ্রাম (তত্ত্বাবধায়ক, হিসাব বিভাগ), ঢাকা স্কুল অব ইকনোমিকস, প্রফেসর শেখ ইকরামুল কবির উপস্থিত ছিলেন। শীঘ্রই ”সাম্য ভিত্তিক প্রবৃদ্ধি”র উপর দু’টো গ্রন্থ বের হবে।

পোষ্টটি লিখেছেন: লেখাপড়া বিডি ডেস্ক

লেখাপড়া বিডি ডেস্ক এই ব্লগে 990 টি পোষ্ট লিখেছেন .

লেখাপড়া বিডি বাংলাদেশের প্রথম শিক্ষা বিষয়ক বাংলা কমিউনিটি ব্লগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *