এমসিকিউ থাকছে না রাবির ভর্তি পরীক্ষায়

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় বহুনির্বাচনী বা এমসিকিউ পদ্ধতি থাকছে না বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম আব্দুস সোবহান।

০৬ জুলাই ২০১৮ তারিখ সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচি শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

অধ্যাপক ড. এম আব্দুস সোবহান বলেন, এমসিকিউতে সত্যিকার মেধা যাচাই হয় না। চারটি উত্তরের মধ্যে একটি টিক দিলে সঠিক হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই এবছর থেকে সৃজনশীল পদ্ধতিতে পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন। সেখানে দুই ঘণ্টায় ১০০ মার্কের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

উপাচার্য আরো বলেন, এবার ইউনিট কমিয়ে দুইদিনে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ে পূর্বে অনেকদিন ধরে পরীক্ষা হতো। প্রাথমিকভাবে আগামী ২২ ও ২৯ অক্টোবর তারিখে পরীক্ষার দিন ঠিক করার প্রস্তাব রাখা হয়েছে। একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় বিষয়টি পাস হলে সিদ্ধান্তের ব্যাপারে জানিয়ে দেওয়া হবে।

এবার পরীক্ষার নির্দিষ্ট ফি নেওয়া হবে এবং নির্দিষ্ট সংখ্যক শিক্ষার্থীকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে দেওয়া হবে বলেও প্রাথমিকভাবে জানা যায়।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, এ বছর ভর্তি পরীক্ষায় আবেদনের ক্ষেত্রে পরিবর্তন আসতে পারে। পরীক্ষার্থীদের দুইটি পর্যায়ে আবেদন করতে হতে পারে। প্রথম পর্যায়ে রেজাল্টের মান দেখে শিক্ষার্থীদেরকে বাছাই করা হবে। পরে বাছাইয়ে উত্তীর্ণদেরকে পরীক্ষার প্রবেশপত্র উত্তোলনের ব্যাপারে জানিয়ে দেওয়া হবে। এ সময় পরীক্ষার নির্দিষ্ট ফি নেওয়া হবে। নির্দিষ্ট সংখ্যক শিক্ষার্থীকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে দেওয়া হবে বলেও প্রাথমিকভাবে জানা যায়।

পোষ্টটি লিখেছেন: লেখাপড়া বিডি ডেস্ক

লেখাপড়া বিডি ডেস্ক এই ব্লগে 949 টি পোষ্ট লিখেছেন .

লেখাপড়া বিডি বাংলাদেশের প্রথম শিক্ষা বিষয়ক বাংলা কমিউনিটি ব্লগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *