এমবিএ দেশে ও বিদেশে

এমবিএ দেশে

ব্যবসা-বাণিজ্য নিয়ে পড়াশোনায় পেশাদার ডিগ্রিগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো এমবিএ। স্নাতক শেষে চাকরির বাজারের চাহিদা অনুসারে শিক্ষার্থীরা পড়ছেন এমবিএ। শুধু ব্যবসায় প্রশাসনে স্নাতক ডিগ্রিধারীরাই এমবিএ করার জন্য উদগ্রীব নন, প্রকৌশল কিংবা সামাজিক বিজ্ঞানের শিক্ষার্থীরাও এমবিএ ডিগ্রি অর্জন করতে চান। দেশের অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয়ে আছে স্ট্যান্ডার্ড এমবিএ প্রোগ্রাম, এক্সিকিউটিভ এমবিএ প্রোগ্রাম, পার্টটাইম এমবিএ প্রোগ্রাম, ডিসটেন্স লার্নিং এমবিএ প্রোগ্রাম।

MBA-Degree

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউটের (আইবিএ) এমবিএতে ভর্তি হতে হলে স্নাতক শেষ করে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে। এক্সিকিউটিভ এমবিএর জন্য যে কোনো বিষয়ে স্নাতক শেষ করে তিন বছরের কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হয় আবেদনকারীর। এ কোর্সে আবেদনকারী যে কোনো বিভাগ থেকে ন্যূনতম স্নাতক ডিগ্রিধারী হতে হবে। তবে কোনো প্রার্থীর যদি সমমানের প্রফেশনাল ডিগ্রি থাকে, তিনিও এ কোর্সে আবেদন করতে পারবেন। শিক্ষার্থীদের ব্যাচেলর ডিগ্রি শেষে অবশ্যই তিন বছরের পূর্ণকালীন কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। আবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের (এফবিএস) বিভিন্ন বিষয়ে এমবিএ পড়ানো হয়। যারা এখানে স্নাতকে বিবিএ পড়ছেন, তারা সরাসরি ভর্তি হতে পারেন এমবিএতে। অন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের এ অনুষদে বিভিন্ন বিষয়ে ইভিনিং এমবিএ প্রোগ্রামে ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে পড়ার সুযোগ রয়েছে।
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদ থেকে এমবিএ করতে হলে চার বছরের স্নাতক ডিগ্রি থাকতে হবে। এছাড়া এসএসসি, এইচএসসি ও স্নাতক পর্যায়ের কোনো ক্ষেত্রেই জিপিএ ২.৫ এর কম থাকা যাবে না। খরচ পড়বে প্রায় দেড় লাখ টাকার মতো।

আমদের পেইজে লাইক দিন গ্রুপে যোগ দিন

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমবিএ করতে খরচ পড়বে প্রায় সাড়ে তিন লাখ টাকা। এই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমবিএ করতে হলে আগের সব পাবলিক পরীক্ষায় নূ্যনতম শতকরা ৪৫ ভাগ নম্বর থাকতে হবে। আর স্নাতক পর্যায়ে সিজিপিএ ন্যূনতম ২.৫ থাকতে হবে।
ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমবিএ করতে হলে খরচ পড়বে সাড়ে তিন লাখ টাকা। এক্সিকিউটিভ এমবিএ করতে হলে খরচ পড়বে চার লাখ টাকা। সঙ্গে থাকতে হবে কমপক্ষে চার বছর চাকরির অভিজ্ঞতা। এখান থেকে এমবিএ করতে হলে সব পাবলিক পরীক্ষায় কমপক্ষে শতকরা ৫০ ভাগ নম্বর থাকতে হবে। আর স্নাতক পর্যায়ে সিজিপিএ ন্যূনতম ২.৭৫ থাকতে হবে।

ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমবিএ করতে হলে খরচ পড়বে তিন লাখ ত্রিশ হাজার টাকা। এক্সিকিউটিভ এমবিএ করতে হলে খরচ পড়বে দুই লাখ চলি্লশ হাজার টাকা। থাকতে হবে দুই বছরের চাকরির অভিজ্ঞতা।

এমবিএ বিদেশে

এদেশ থেকে স্নাতক সম্পন্ন করে দেশের বাইরেও ব্যবসা প্রশাসনের ওপর স্নাতকোত্তর (এমবিএ) করার সুযোগ আছে। বিভিন্ন দেশের এমবিএ প্রোগ্রামের খবরাখবর জানাচ্ছেন দেবশ্রী ভৌমিক

এদেশ থেকে স্নাতক সম্পন্ন করে দেশের বাইরেও ব্যবসা প্রশাসনের ওপর স্নাতকোত্তর করার সুযোগ আছে। এমবিএ প্রোগ্রাম সাধারণত দুই বছরের হয়ে থাকে। অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ে কাজের ক্ষেত্রে পূর্ব অভিজ্ঞতা আছে এমন ভর্তিচ্ছুদের জন্য এক্সিকিউটিভ এমবিএ আর যারা সদ্য স্নাতক সম্পন্ন করেছেন তাদের জন্য থাকছে রেগুলার এমবিএ। যদি এমবিএ করতে চান বাইরে অর্থাৎ বিদেশে, তাহলে আপনার সিভিতে যোগ হবে নতুন মাত্রা।

আমেরিকা
বিশ্বের সবচেয়ে প্রতিষ্ঠিত বিজনেস স্কুলের জন্য সুখ্যাতি আমেরিকার। বাংলাদেশী ৬০ থেকে ৭০ লাখ টাকা খরচ পড়বে এমবিএ করতে। আমারিকায় এমবিএর জন্য বিখ্যাত বিজনেস স্কুলগুলোর মধ্যে আছে বুথ স্কুল অব বিজনেস, ইউনিভার্সিটি অব শিকাগো; হার্ভার্ড বিজনেস স্কুল, স্ট্যানফোর্ড গ্রাজুয়েট স্কুল অব বিজনেস। এসব প্রতিষ্ঠান থেকে এমবিএ সম্পন্ন করতে হলে শিক্ষার্থীকে স্নাতক সম্পন্ন করতে হবে। এছাড়া জিআরই কিংবা জিম্যাট সম্পন্ন করতে হবে, সঙ্গে থাকতে হবে টোফেল কিংবা আইইএলটিএস। যোগ্যতার ওপর নির্ভর করে প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয় স্কলারশিপ প্রদান করে থাকে।

যুক্তরাজ্য
বাংলাদেশী ৫০ থেকে ৫৫ লাখ টাকার মতো খরচ হবে যুক্তরাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়গুলো থেকে এমবিএ সম্পন্ন করতে। যুক্তরাজ্যের এমবিএর জন্য খ্যাতনামা স্কুলগুলো হলো লন্ডন বিজনেস স্কুল, ইউনিভার্সিটি অব অঙ্ফোর্ড, ইউনিভার্সিটি অব ক্যামব্রিজ, ম্যানচেস্টার বিজনেস স্কুল, ইউনিভার্সিটি অব ম্যানচেস্টার। যোগ্যতার ওপর নির্ভর করে প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয় স্কলারশিপ প্রদান করে থাকে। জিআরই কিংবা জিম্যাট সম্পন্ন করতে হবে, সঙ্গে থাকতে হবে আইইএলটিএস।

কানাডা
অন্যান্য দেশের তুলনায় কম খরচ হয় কানাডায়। বাংলাদেশী টাকায় ২০ থেকে ২৫ লাখ টাকা খরচ হয় এদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলো থেকে এমবিএ করতে। ইউনিভার্সিটি অব টরেন্টো, কুইন্স স্কুল অব বিজনেস, কুইন্স ইউনিভার্সিটি সেইন্ট জন ফ্যাকাল্টি অব বিজনেস, ইউনিভার্সিটি অব নিউ ব্রুনসিক, ইভেই বিজনেস স্কুল ও ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটি কানাডা থেকে সম্পন্ন করা যাবে এমবিএ।

অস্ট্রেলিয়া
অস্ট্রেলিয়া ট্যুরিজম ইন্ডাস্ট্রির জন্য বিখ্যাত হলেও এমবিএ করতে অনেকেই এ দেশটা বেছে নেয়। অস্ট্রেলিয়াতে এমবিএ করার জন্য খরচ হতে পারে ৫০ লাখ টাকার মতো। মেলবোর্ন বিজনেস স্কুল, ইউনিভার্সিটি অব মেলবোর্ন; অস্ট্রেলিয়ান স্কুল অব বিজনেস, ইউনিভার্সিটি অব নিউ সাউথ ওয়েলস ও সিডনি বিজনেস স্কুল থেকে সম্পন্ন করা যাবে এমবিএ। জিম্যাট অথবা জিআরই সঙ্গে আইইএলটিএস বা টোফেল যেকোনো একটি সম্পন্ন করা থাকতে হবে। আইএলটিএস কিংবা টোফেলে ৮ পয়েন্টের মধ্যে ন্যূনতম ৬ পেতে হবে। কোনো শিক্ষার্থী যদি স্কলারশিপ নিয়ে এমবিএ পড়তে যেতে চায় তাহলে তাকে যে কোনো বাছাইকৃত বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে হবে।

পোষ্টটি লিখেছেন: বি.এম. মুন্না

এই ব্লগে 64 টি পোষ্ট লিখেছেন .

Ads by Wizards

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।