১২ অক্টোবর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা সমাবেশে বক্তৃতা করবেন প্রধানমন্ত্রী

আসছে ১২ অক্টোবর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা সমাবেশে বক্তৃতা করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রাজধানীতে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারে সারাদেশ থেকে কলেজ অধ্যক্ষরা অংশ নেবেন সম্মেলনে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন -অর-রশীদ আজ মঙ্গলবার (৩রা অক্টোবর) এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য প্রকাশ করেন। রাজধানীর ধানমন্ডিতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নগর অফিসে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

এদিন প্রধানমন্ত্রী জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন নতুন স্থাপনা ও প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন। এর মধ্যে বাংলাদেশ সরকার ও বিশ্বব্যাংকের ১ হাজার ৪০ কোটি টাকার যৌথ অর্থায়নে কলেজ শিক্ষা উন্নয়ন প্রকল্প, বরিশাল, রংপুর ও চট্টগ্রামের মোট তিনটি ১০তলা ভবনের আঞ্চলিক কেন্দ্র, ধানমন্ডিতে মুক্তিযুদ্ধ বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ গবেষণা ইনস্টিটিউট, ‘স্বাধীনতা’ ম্যুরাল ১৯৫২-১৯৭১ এবং ডরমিটরি, আইসিটি, সিনেট, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের জন্য পৃথক পৃথক বহুতল ভবনের উদ্বোধন।

এছাড়া গত পাঁচ বছরের কি কি পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে, ভবিষ্যত পরিকল্পনা কী এসব বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করানোর প্রস্তুতি নিচ্ছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি-প্রোভিসি-কোষাধ্যক্ষসহ অন্যান্যরা। সারাদেশের উচ্চশিক্ষার সরকারি ও বেসরকারি কলেজগুলোর একাডেমিক দিক দেখভালের দায়িত্ব পৃথিবীর অন্যতম বৃহৎ এই এ্যাফিলিয়েটিং বিশ্ববিদ্যালয়টির।

দ্বিতীয় মেয়াদে ভিসির দায়িত্ব পালন করছেন বিশিষ্ট রাষ্ট্রবিজ্ঞানী ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপক ড. হারুন-অর-রশীদ আর কোষাধক্ষ্যের দায়িত্ব পালন করছেন মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের সাবেক সফল মহাপরিচালক অধ্যাপক মো: নোমান উর রশীদ।

দীর্ঘ সেশন জ্যাম কমাতে তারা নতুন নতুন পদক্ষেপ নিচ্ছেন। অধিভুক্ত কলেজগুলোর মান উন্নয়নে শিক্ষকদের জন্য বিদেশে প্রশিক্ষণ ও র‌্যাংকিং চালু করেছেন।

পোষ্টটি লিখেছেন: মোহাম্মদ মোহন

মোহাম্মদ মোহন এই ব্লগে 74 টি পোষ্ট লিখেছেন .

মোহাম্মদ মোহন সম্প্রতি নোয়াখালী সরকারি কলেজ, নোয়াখালী থেকে বি.এস.এস (অনার্স), এম.এস.এস (অর্থনীতি) সম্পন্ন করেছেন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।