নবম-দশম শ্রেণীর হিসাববিজ্ঞানঃ এসএসসি নৈর্ব্যত্তিক পরীক্ষা প্রস্তুতিঃ একাদশ অধ্যায় পণ্যের ক্রয়মূল্য, উৎপাদন ব্যয় ও বিক্রয়মূল্য

সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়ে নবম-দশম শ্রেণীর হিসাববিজ্ঞানঃ এসএসসি নৈর্ব্যত্তিক পরীক্ষা প্রস্তুতিঃ একাদশ অধ্যায় পণ্যের ক্রয়মূল্য, উৎপাদন ব্যয় ও বিক্রয়মূল্য এর বহুনির্বাচনী বা নৈর্ব্যত্তিক সাজেশন লিখতে যাচ্ছি। আশা করি নবম-দশম শ্রেণীর ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য উপকারী হবে।

আর হ্যাঁ, ইউনিভার্সিটি এডমিসন পরীক্ষায় হিসাববিজ্ঞান বিষয়ে প্রস্তুতিতেও এই পোস্ট টি হেল্পফুল হবে। বই পড়তে চাইলে ঘুরে আসতে পারেন Bangla Books PDF থেকে।

নবম-দশম শ্রেণীর হিসাববিজ্ঞানঃ এসএসসি নৈর্ব্যত্তিক পরীক্ষা প্রস্তুতিঃ অধ্যায়  একাদশ

পণ্যের ক্রয়মূল্য, উৎপাদন ব্যয় ও বিক্রয়মূল্য

  • পণ্যের ক্রয়মূল্য বলতে বোজায়- পণ্যের প্রকৃত দাম ও ক্রয়সংক্রান্ত প্রত্তক্ষ খরচ।
  • যে খরচ পণ্য ক্রয় বা উৎপাদনের সাথে সরাসরি জড়িত থাকে তাকে বলে প্রত্যক্ষ খরচ।
  • প্রত্যক্ষ খরচের উদাহরণঃ পণ্যের বহন খরচ, পণ্য ক্রয়, মজুরি, শুল্ক ইত্যাদি।
  • পরোক্ষ খরচের উদাহরণঃ বেতন, বিজ্ঞাপন, বাড়ি ভাড়া, কমিশন, অফিস খরচ, ষ্টেশনারী, বিক্রয় পরিবহণ ইত্যাদি।
  • যেসকল খরচ পণ্য ক্রয় বা উৎপাদনের সাথে সরাসরি জড়িত নয়, তাকে বলে পরোক্ষ খরচ।
  • পণ্যের বিক্রয়মূল্য হতে মোট মুনাফা বাদ দিলে তাকে বলা হয়- বিক্রীত পণ্যের মূল্য।
  • বিক্রয়কৃত পণ্যের পরিবহণ খরচকে বলা হয়- বহির্মুখী বহন।
  • বিক্রয়মূল্য নিরূপণ করা হয়- মোট ব্যয়ের সাথে লাভ যোগ করে।
  • কোন পণ্য উৎপাদন বা অর্জন ও সেবা প্রদানের জন্য যে মূল্য ত্যাগ করা হয় তাকে বলা হয়- কষ্ট(cost)
  • কোন পণ্য বা সেবা প্রদান করতে বা সৃষ্টি করতে যে খরচ হয় তাকে বলে- উৎপাদন ব্যয়
  • পণ্যের ক্রয়মূল্যের সাথে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ খরচসমূহ যোগ করলে পাওয়া যায়- মোট উৎপাদন ব্যয়।
  • প্রত্যক্ষ কাঁচামালসমূহঃ বই উৎপাদনে কাগজ, আসবাবপত্র তৈরিতে কাঠ, কাপড়ের জন্য সুতা, চট উৎপাদনে পাট, চিনির জন্য আখ, সুতা উৎপাদনের জন্য তুলা।
  • পরোক্ষ কাঁচামালসমূহঃ শার্ট তৈরির জন্য সুতা ও বোতাম, আসবাবপত্র তৈরিতে পেরেক, জুতা তৈরিতে আঠা ইত্যাদি।
  • কারখানা উপরিব্যয় বা উৎপাদন উপরিব্যয়ঃ পরোক্ষ কাঁচামাল, পরোক্ষ মজুরি, কারখানার বিদ্যুৎ খরচ, যন্ত্রপাতির অবচয় ইত্যাদি।
  • প্রশাসনিক উপরিব্যয়ঃ অফিসের বেতন, অফিস ভাড়া, আপ্যায়ন খরচ, আসবাবপত্রের অবচয়, মনিহারি খরচ, টেলিফোন খরচ, বিদ্যুৎ খরচ ইত্যাদি।
  • বিক্রয় উপরিব্যয়ঃ বিক্রয় দোকান ভাড়া, বিক্রয়কারীর বেতন, শো-রুমের খরচ, বিজ্ঞাপন, বহিঃপরিবহণ খরচ, অনাদায়ী পাওনা, ভ্রমন খরচ ইত্যাদি।
  • প্রত্যক্ষ কাঁচামাল + প্রত্যক্ষ মজুরি + প্রত্যক্ষ খরচঃ মুখ্য ব্যয়।
  • মোট ব্যয় + কারখানা উপরিব্যয়ঃ উৎপাদন ব্যয়।
  • উৎপাদন ব্যয় + অফিস ও বিক্রয় উপরিব্যয়ঃ মোট ব্যয়।
  • মোট ব্যয় + মুনাফাঃ বিক্রয় মূল্য।
  • হিসাবরক্ষণের মুখ্য উদ্দেশ্য হলো- প্রকৃত লাভ-লোকসান নির্ণয় করা।
  • ‘Cost’ শব্দটির অর্থ- ব্যয়।
  • ‘Finished Goods’ অর্থ- বিক্রয় উপযোগী পণ্য/ তৈরিকৃত পণ্য।
  • ‘Feasibility Study’ অর্থ- সম্ভাব্যতা যাচাই।
  • উৎপাদন ব্যয়ে হিসাববিজ্ঞানের প্রাথমিক উদ্দেশ্য হলো- উৎপাদন ব্যয় নির্ণয় করা।

My Blog: Bangla Book

পোষ্টটি লিখেছেন: সালাউদ্দিন ব্যাপারী

এই ব্লগে 28 টি পোষ্ট লিখেছেন .

সালাউদ্দিন ব্যাপারী পেশায় একজন এডুক্যাশনাল ব্লগার এবং শিক্ষক। তিনি হিসাববিজ্ঞান বিষয়ে বিবিএ এবং এমবিএ সম্পন্ন করেছেন। লিখতে ভালোবাসেন। শিক্ষামূলক বিষয় ভালোমানের লেখা দিয়ে ফুটিয়ে তোলাই তার শখ এবং লক্ষ্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *