নবম-দশম শ্রেণীর হিসাববিজ্ঞানঃ এসএসসি নৈর্ব্যত্তিক পরীক্ষা প্রস্তুতিঃ প্রথম অধ্যায় হিসাববিজ্ঞান পরিচিতি

হিসাব শব্দের অর্থ, কোন বিষয় সম্পর্কে সঠিক ও নির্ভুল তথ্য। আর ‘বিজ্ঞান’ শব্দের অর্থ কোন রহস্য সম্পর্কে ‘বিশেষ জ্ঞান’। তাই, হিসাববিজ্ঞান শব্দের অর্থ দাড়ায়, হিসাব তথ্যের বিজ্ঞান। যে সুনির্দিষ্ট ও বিজ্ঞানসম্মত নিয়ম-কৌশল অবলম্বন করে অর্থনৈতিক ঘটনা বা লেনদেন শনাক্ত করে হিসাবের বইতে লিপিবদ্ধকরণ, শ্রেণীবিন্যাসকরণ ও কালান্তে আর্থিক বিবরণী প্রস্তুতের মাধ্যমে ফলাফল নির্ণয় করে সংশ্লিষ্ট পক্ষের নিকট সরবরাহ করা হয়, তাকে হিসাববিজ্ঞান বলে।   হিসাবরক্ষণ শব্দটির ইংরেজি প্রতিশব্দ Book-Keeping। শাব্দিক অর্থে book অর্থ  বই এবং keeping অর্থ সংরক্ষণ। সুতরাং, ‘বুককিপিং’ এর শাব্দিক অর্থ দাড়ায়, বই সংরক্ষণ।   তবে ব্যবসায়ীক দৃষ্টিকোণ থেকে চিন্তা করলে বলতে হয়, বুক(book) অর্থ, হিসাবের বই ও কিপিং এর অর্থ সুষ্ঠু, সহজ, ও সু-শৃঙ্খলভাবে সংরক্ষণ। সহজ কথায়, হিসাবরক্ষণ এর অর্থ হলো, সুষ্ঠু, সহজ ও সুশৃঙ্খলভাবে হিসাবের বই সংরক্ষণ।   কারণ, ব্যবসায় করতে গেলে নানা ধরনের লেনদেন করতে হয়। যেমন, পণ্য ক্রয়, বিক্রয়, ভাড়া দেয়া ইত্যাদি। এ সমস্ত লেনদেনগুলো সুষ্ঠু, সহজ এবং সুশৃঙ্খলভাবে সংরক্ষণের রীতিনীতি শিখানোই হিসাবরক্ষণের মূলকাজ।

নবম-দশম শ্রেণী/SSC EXAM PREPARATION

হিসাববিজ্ঞান

প্রথম অধ্যায়ঃ হিসাববিজ্ঞান পরিচিতি

MCQ HELPLINE

আমদের পেইজে লাইক দিন গ্রুপে যোগ দিন

 

  • আর্থিক লেনদেন লিপিবদ্ধকরন ও বিশ্লেষণ প্রক্রিয়ার কলাকৌশল যে শাস্ত্র শিক্ষা দেয় তাকে বলে হিসাববিজ্ঞান।
  • হিসাববিজ্ঞান যাবতীয় আর্থিক লেনদেনের হিসাব রাখে, শ্রেণীবিভাগ করে এবং ব্যাখ্যা করে।
  • হিসাববিজ্ঞান হলো সেই শাস্ত্র যার দ্বারা আর্থিক কার্যাবলী সুষ্ঠুভাবে লিপিবদ্ধ করা যায় এবং আর্থিক ফলাফল নির্ণয় ও আর্থিক অবস্থা নিরূপণ করা যায়।
  • হিসাববিজ্ঞানকে বলা হয় ব্যবসায়ের ভাষা।
  • হিসাববিজ্ঞানের সর্বপ্রথম উদ্দেশ্য হচ্ছে লেনদেনের সুষ্ঠু লিপিবদ্ধকরণ।
  • হিসাবরক্ষণের সুনির্দিষ্ট নীতির প্রয়োজনীয়তা অনুভব করেন লুকা প্যাসিওলি।
  • লুকা প্যাসিওলি ছিলেন- দার্শনিক/ ধর্মযাজক/ গণিতশাস্ত্রবিদ
  • “সুম্মা ডি এরিথমেটিকা জিওমেট্রিয়া প্রপোরশনিয়েট প্রপোরশনালিটা’ গ্রন্থের রচয়িতা ছিলেন- লুকা প্যাসিওলি।
  • দুতরফা দাখিলা পদ্ধতির উৎপত্তিকাল ইতালিতে।
  • প্রতিষ্ঠানের কাঙ্ক্ষিত ফলাফল অর্জন করা সম্ভব ব্যয় নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে।
  • যাবতীয় আয় ও ব্যয় সঠিকভাবে লিপিবদ্ধকরণের মাধ্যমে ব্যবসায়ের লাভ-ক্ষতি নির্ণয় করা সম্ভব।
  • ব্যবসায়ের গতি প্রকৃতি বোঝা যায় লাভ-লোকসান নির্ণয়ের মাধ্যমে।
  • বিভিন্ন উৎস হতে কর, ভ্যাট, শুল্ক ধার্যের মাধ্যমে বিপুল অর্থ রাজস্ব হিসাবে আদায় করে সরকার।
  • পেশাজীবীদের( ডাক্তার, উকিল প্রভৃতি) হিসাব রাখার প্রয়োজন আয়কর নির্ধারণের জন্য।
  • হিসাব তথ্যের ব্যবহারকারীকে ভাগ করা যায় দুই ভাগে। যথা-
    • অভ্যন্তরীণ ব্যবহারকারী
    • বাহ্যিক ব্যাবহারকারী
  • হিসাব তথ্যের অভ্যন্তরীণ ব্যাবহারকারী মালিক ও ব্যবস্থাপক।
  • হিসাববিজ্ঞানের বাহ্যিক ব্যাবহারকারী ঋণপ্রদানকারী, সরকার, পাওনাদার, কর্মচারী ও কর্মকর্তা।
  • জবাবদিহীমূলক প্রক্রিয়া ও স্বচ্ছ দায়িত্ববোধ গড়ে তোলা যায় আর্থিক লেনদেনগুলো যথার্থভাবে লিপিবদ্ধকরণের মাধ্যমে।
  • নিজের কাজের জন্য তৃতীয় পক্ষের নিকট দায়বদ্ধতাই হচ্ছে জবাবদিহিতা।
  • ICAB– Institute of Charted Accountant in Bangladesh
  • IMAB– Institute of Management Accountant in Bangladesh
  • CPA– Certified Public Accountant
  • CA– Certified Accountant

নবম দশম শ্রেণীর বা SSC MCQ Examinationa  Preparation এর জন্য এই ছিল এই পোস্ট এর আয়োজন। আশা করছি সবার নিকট তা গ্রহণযোগ্য ও উপকারী হবে।   বিঃ দ্রঃ এগুলো University Admission এর ক্ষেত্রেও অনেক উপকারে আসবে। তো! হিসাববিজ্ঞান বিষয়ে পরীক্ষা প্রস্তুতি চলুক অবিরাম! 🙂

Welcome To My Blog: Bangla Book Download PDF

পোষ্টটি লিখেছেন: সালাউদ্দিন ব্যাপারী

এই ব্লগে 29 টি পোষ্ট লিখেছেন .

সালাউদ্দিন ব্যাপারী পেশায় একজন এডুক্যাশনাল ব্লগার এবং শিক্ষক। তিনি হিসাববিজ্ঞান বিষয়ে বিবিএ এবং এমবিএ সম্পন্ন করেছেন। লিখতে ভালোবাসেন। শিক্ষামূলক বিষয় ভালোমানের লেখা দিয়ে ফুটিয়ে তোলাই তার শখ এবং লক্ষ্য।

Ads by Wizards

One comment

  1. ভাল লেখা। শিক্ষার আছে অনেক কিছু।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।