শবেবরাতের বিশেষত্ব

শবেবরাতের মহিমা,বিশেষত্ব, ফজিলত ও আমলসমুহ
এ রাতে হায়াত-মউত ও বার্ষিক বাজেটের ফয়সালা হয়ঃ-

عن عروة بن الزبير عن عائشة رضى الله عنها قالت لما كانت ليلة النصف من شعبان قالت فما زال رسول الله صلى الله عليه وسلم يصلى قائماو قاعدا حتى اصبح فقال يا عائشة قالت هل تدرين ما في هذه الليلة قالت مافيها يا رسول الله فقال فيها يكتب كل مولود من بنى ادم في هذه السنة وفيها ان يكتب كل هالك من بنى ادم في هذه السنة وفيها ترفع اعمالهم وفيها تنزل ارزاقهم

হযরত আয়েশা রাদ্বিয়াল্লাহু তা’আলা আনহা হযরত নবী করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম থেকে বর্ণনা করেনঃ শবে বরাতে কি ঘটে এ সম্পর্কে হযরত আয়েশারাদ্বিয়াল্লাহু তা’আলা আনহা হযরত নবী করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম থেকে জানতে চাইলে তিনি এরশাদ করেন,এই রাতের কার্যক্রম হলো এই বছর যত(সন্তান)জন্মগ্রহন করবে তা লিপিবদ্ধ করা হয়। এই বছর যত (লোক)ইন্তেকাল করবে তা লিখা হয়। আর এই রাতেই বান্দাদের (সারে বছরের)কার্যাবলী(আসমানে)উঠানো হয়। আর এই রাতেই নির্ধারিত রিয্‌ক অবতীর্ণ হয়।
সুত্রঃমিশকাত শরীফ, হা-১৩০৫

وقال عطاء بن يسار اذا كان ليلة النصف من شعبان دفع الى ملك الموت صحيفة فيقال اقبض من في هذه الصحيفة فان العبد ليغرس وينكح الازواج ويبني البيان وان اسمه قد نسخ في الموتى ماينتظر به ملك الموت الا ان يؤمر به فيقبضه

“যখন শাবানের মধ্য রাত উপস্থিত হয়।তখন মালাকুল মাওত এর কাছে একটি রেকর্ডবুক অর্পন করে এ নির্দেশ দেয়া হয় যে, এ বইয়ে যাদের নযম উল্লেখ রয়েছে তাদের প্রাণ কবয কর।দেখা যায় মানুষ গাছ লাগাচ্ছে, বিবাহ করছে,ঘর নির্মাণ করছে,অথচ তার নাম মৃতদের তালিকাভূক্ত। আর মালাকুল মাউত একমাত্র নির্দেশের অপেক্ষায় থাকে। নির্দেশ পাওয়া মাত্রই জান কবয করে নেন।

*শবে বরাতে সাধারণ ক্ষমা ঘোষনা-
হযরত আবু বকর সিদ্দীক রাদ্বিয়াল্লাহু তা’আলা আনহু,আবু মুসা আশাআরী রাদ্বিয়াল্লাহু তা’আলা আনহু,আবু হুরায়রা রাদ্বিয়াল্লাহু তা’আলা আনহু,আউফ বিন মালেক রাদ্বিয়াল্লাহু তা’আলা আনহু,কাছীর বিন মুররাহ রাদ্বিয়াল্লাহু তা’আলা আনহুসহ বহু সাহাবায়ে কেরাম থেকে এ বিষয়ে হাদিস বর্ণিত হয়েছে।
নবী করিম সাল্লাল্লাহ আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইরশাদ করেছেন,আল্লাহ তা’আলা শাবানের পনেরতম রাত্রে প্রথম আসমানের দিকে বিশেষ রহমতের দৃষ্টি নিবদ্ধ করেন এবং এই রজনীতে সকলকে ক্ষমা ও মাগফিরাত করে কেবল মাত্র মুশরিক ও হিংসুক ব্যতীত।
হযরত ইবনে উমর রাদ্বিয়াল্লাহু তা’আলা আনহু হতে বর্ণিত আছেঃ

عن بن عمر قال خمس ليال لاترد فيهن الدعاء ليلة الجمعة واول ليلة من رجب وليلة النصف من شعبان وليتي العيدين

অর্থঃ হযরত ইবনে উমর রাদ্বিয়াল্লাহু তা’আলা আনহু বলেনঃ পাচঁটি রজনীতে দু’আ করা তা কখনো ফেরত দেয়া হয় না(অবশ্যই কবুল হয়) জুম’আর রাত, রজবের প্রথম রাত,শাবানের পঞ্চদশ রাত এবং দুই ঈদের রাত।

পোষ্টটি লিখেছেন: Mohammad Khalilur Qaderi

Mohammad Khalilur Qaderi এই ব্লগে 8 টি পোষ্ট লিখেছেন .

মুহাম্মদ খলিলুর কাদেরী গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার বরমী ইউনিয়নে জন্মগ্রহণ করেন, সে এখন জতীয় বিশ্ববিদ্যালয় এর অন্তর্ভূক্ত ভাওয়াল বদরে আলম সরকারি কলেজ, গাজীপুর। হতে অনার্স (বাংলা বিভাগ) এর ছাত্র...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *