জাবি প্রেসক্লাবের সংকট সামাধানে উপাচার্যের আশ্বাস

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাবের নির্বাচন ছাড়াই অবৈধ কমিটি ঘোষণায় সৃষ্ট জটিলতার সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন উপাচার্য ড. অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম। আগামী ১১ মে বৃহস্পতিবার উভয় পক্ষের সাথে আলোচনার মাধ্যমে এ সংকট সমাধানের আশা ব্যক্তকরেন তিনি। সোমবার রাতে উপাচার্যের নিজ বাস ভবনে জাবি প্রেসক্লাবের একাংশের সাথে সাক্ষাৎ কালে তিনি এ কথা জানা।

জানা যায়, জাবি প্রেসক্লাবের নতুন সদস্য আহব্বান, নবায়ন ও ভোটার তালিকা প্রণায়নে জালিয়াতির আশ্রয় নেওয়ায় জটিলতার সৃষ্টি হয়। পরবর্তীতে নির্বাচনের কোন বিধি না মেনেই ১ দিনের মধ্যে নির্বাচন আয়োজন করার সংবাদ গণমাধ্যমে প্রকাশ হলে ২১ এপ্রিল নির্বাচন স্থগিত হয়ে যায়। সমস্যা সমাধানের নির্দেশ দিয়ে উপাচার্য ৩ সদস্য বিশিষ্ট নির্বাচন কমিশনার গঠন করেন। কিন্তু ওই নির্বাচন কমিশনারবৃন্দ কোন সমস্যা সমাধান না করে নির্বাচন ছাড়াই কমিটি ঘোষণা করেন ৩ মে। সকল নিয়ম নীতি লঙ্ঘন করে নির্বাচনছাড়াই কমিটি ঘোষণা করায় জটিলতা আরও বৃদ্ধি পায়।

নির্বাচন ছাড়া ঘোষিত অবৈধ কমিটি বাতিলের দাবিতে উপচার্যকে ৪৮ ঘন্টার সময় বেধে দেন জাবি প্রেসক্লাবের একাংশের সাংবাদিকবৃন্দ। ওই সময়ের মধ্যে অবৈধ কমিটিকে বাতিল না করলে কঠোর কর্মসূচী দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সমস্যা সমাধানে উপাচার্যের আশ্বাসে তা থেকে বিরত থাকেন সাংবাদিকবৃন্দ।

আমদের পেইজে লাইক দিন গ্রুপে যোগ দিন

এ বিষয়ে জানতে চাইলে জাবি প্রেসক্লাবের সদস্য ও দৈনিক জনকন্ঠের সাংবাদিক দীপঙ্কর দাস বলেন- উপচার্যের ব্যস্ততা থাকায় আগামী বৃহস্পতিবার উভয় পক্ষের সাথে আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দেন আমাদের। কমিটি বাতিলে আনুরোধে উপাচার্য বরাবর ৪৮ ঘন্টা সময় সীমা পার হলেও উপাচার্যের উপর আশ্বাস্ত হয়েই মূলত আমরা কোন আন্দোলন বা কর্মসূচী গ্রহন করিনি।

পোষ্টটি লিখেছেন: mdmusaju

মুহাম্মদ মূসা এই ব্লগে 7 টি পোষ্ট লিখেছেন .

Ads by Wizards

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।