জাতীয় কবি’র নাতনী ঢাকায় থাকতে চান!

 

বিদ্রোহী কবি ও আমাদের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম-এর নাতনী পারমানেন্টলি ঢাকায় থাকতে চান বলে একটা নিউজ প্রকাশিত হয়েছে। বাংলাদেশের স্বাধীনতার পর ১৯৭২ সালের ১০ জৌষ্ঠ ১৪ মে একটি বিশেষ ফোকার ফ্রেন্ডশীপ বিমানে করে কবিকে সপরিবারে ঢাকায় আনা হয়। কবিকে নিয়ে বিমানটি সকাল ১১-৪০ মিনিটে ঢাকা বিমান বন্দরে অবতরণ করে। অগণিত নজরুল প্রেমিক, ভক্ত, সাহিত্যিক, কণ্ঠশিল্পী, স্কুর-কলেজ ও ইউনিভার্সিটির ছাত্র-ছাত্রী কবিকে বিমান বন্দরে অভ্যর্থনা ও অভিনন্দন জানান। এরপর ১৯৭২ সালের ১০ জৈষ্ঠ্য ২৪ মে সপরিবারে তাকে ধানমন্ডির ‘কবি ভবনে’ আনা হয়। ঢাকায় আসার পর কবির শারীরিক অবস্থা মোটেও ভাল ছিল না। অসুস্থ কবিকে ঢাকার পিজি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে জাতীয় কবির মর্যাদাপ্রাপ্ত কবিকে বাংলাদেশের নাগরিকত্ব ও ১৯৭৬ সালে ‘একুশে পদক’ এবং ‘স্বাধীনতা পদক’ প্রদান করা হয়। ১৯৭৪ সালেই ঢাকা ইউনিভার্সিটি নজরুলকে সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রি (ডি.লিট) প্রদান করে। যদিও অসুস্থ, বাকশক্তি ও স্মৃতি শক্তি হারানো কবি নজরুলের এসব ব্যাপারে কোনো অনুভূতি ছিল কিনা তা সঠিক ভাবে বলা কঠিন। অসুস্থ অবস্থায় কবিকে বঙ্গভবন নিয়ে যাওয়া হয়। তখনকার প্রেসিডেন্ট বিচারপতি আবু সাদাত মোঃ সায়েম তাঁকে শ্রদ্ধার সাথে পদক পড়িয়ে দেন। ক্ষুরধার লেখনী শক্তি ও বিপ্লবী চরিত্রের কারণে কাজী নজরুল ইসলাম বিদ্রোহী কবির উপাধি পান। এ আজন্মা বিপ্লবী ও বিদ্রোহী কবি ১৯৭৬ সালের ২৯ আগষ্ট ঢাকার পিজি হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন।

১৮৯৯ খ্রিস্টাব্দের ২৪ মে, ১৩০৬ বাংলার ১১ই জ্যৈষ্ঠ ইন্ডিয়ার পশ্চিম বঙ্গের বর্ধমান জেলার আসানসোল মহকুমার চুরুলিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন কাজী নজরুল ইসলাম। চুরুলিয়া গ্রামটি আসানসোল মহকুমার জামুরিয়া থানায় অবস্থিত। দাদা কাজী আমিন উল্লাহর পুত্র কাজী ফকির আহমদের দ্বিতীয় পত্নী জাহেদা খাতুনের ষষ্ঠ সন্তান তিনি। তার বাবা ছিলেন স্থানীয় এক মসজিদের ইমাম। কাজী নজরুল ইসলামের ডাক নাম ছিল “দুখু মিয়া”|

আমদের পেইজে লাইক দিন গ্রুপে যোগ দিন

কবির জীবীত থাকা কালেই তার ছোট ছেলে কাজী অনিরুদ্ধ ইসলাম ১৯৭৪ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি ৪৩ বছর বয়সে কলকাতায় ইন্তেকাল করেন। অনিরুদ্ধর পরিবার কলকাতায় বসবাস করেন। তার স্ত্রী কল্যাণী কাজী নজরুল সংগীতের প্রশিক্ষক। তিনি লেখালেখিও করেন।

প্রশ্ন হলো এতো বছর পর জাতীয় কবির ছোট ছেলের পরিবার কলকাতা ছেড়ে ঢাকায় বসবাস করতে চান কেন? কলকাতায় কি তাদের থাকার সমস্যা হচ্ছে? না সাম্প্রদায়িক রোষের শিকার হচ্ছেন?

পোষ্টটি লিখেছেন: Sayed Iquram Shafi

এই ব্লগে এটাই Sayed Iquram Shafi এর প্রথম পোষ্ট.

I am common man with a deference. I have writing poem, little story, novel, various topics of article and history.

Ads by Wizards

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।