গণিতের রঙ্গে- হায়রে শূন্য!

গণিতের রঙ্গে- হায়রে শূন্য!zero-number

১. ব্যাবিলনের মানুষেরা শূন্যকে সংখ্যার মর্যাদা দিতে পারে নি কথাটার মানে কী?
– ব্যাবিলনের মানুষেরা শূন্যকে ব্যবহার করত ফাঁকা ঘর পূরণের একটা সামান্য প্রতীক হিসেবে। যেমন আমরা বুঝি, ১১, ১০১, ১০০১ এই সংখ্যাগুলোর প্রত্যেকটিতেই দুটি করে ১ আছে, কিন্তু এরা আলাদা। এই আলাদা করার
কাজটা করেছে মাঝের ফাঁকা জায়গাগুলো, যেগুলোকে আমরা ০ দিয়ে দেখিয়েছি। ব্যাবিলনীয়রা গুলতির হাতলের মতো দেখতে একরকম প্রতীক ব্যবহার করে এটাই দেখাত।

কিন্তু ০ একাই যে একটা সংখ্যা হবার যোগ্যতা রাখে, শুধু ০ দিয়েই অন্য সংখ্যাকে যোগ, বিয়োগ, গুণ, ভাগ করা যেতে পারে এটা ওরা বুঝতে পারে নি।

আমদের পেইজে লাইক দিন গ্রুপে যোগ দিন

২. ১ কে ০ দিয়ে ভাগ করলে কী ঝামেলা হয় সেটা আরও অনেকভাবে বোঝা যায়। মনে করুন একটা বালতিতে ১৫ লিটার পানি আঁটে। আর একটা মগে ৩ লিটার পানি আঁটে। তাহলে মগ দিয়ে সব পানি তুলে ফেলতে চাইলে ৫ বার তুলতে হবে। ১৫ ভাগ ৩ = ৫। ভাগকে এভাবে বোঝার চেষ্টা করি। ঠিক একই ভাবে, বালতিতে যদি ২ লিটার পানি আঁটে আর মগে ১ লিটার, তাহলে সব পানি ওঠাতে চাইলে পানি তুলতে হবে ২ ভাগ ১= ১ বার।

এবার ভাবুন, বালতিতে যদি ১ লিটার পানি থাকে, আর মগে যদি পানিই না আঁটে (মগের তলা পুরো ফাঁকা !) অর্থাৎ মগে যদি ০ লিটার পানি আঁটে, তাহলে ঐ মগ দিয়ে সব পানি ওঠাতে চাইলে পানি তুলতে হবে ১ ভাগ ০ বার!! অমন মগে কি আদৌ পানি ওঠানো যাবে? যাবে না! এবং ১ ভাগ ০ এর মানও পাওয়া যাবে না।

শিক্ষামূলক সব তথ্য পেতে ঘুরে আসুন www.lekhok.xyz

পোষ্টটি লিখেছেন: Muhammad Tuhin Miah

Muhammad Tuhin Miah এই ব্লগে 8 টি পোষ্ট লিখেছেন .

www.tuhinbd.me

Ads by Wizards

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।