১৩ তম শিক্ষক নিবন্ধন প্রিলি. পরীক্ষার ফল প্রকাশ ২০১৬

বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগের জন্য ত্রয়োদশ নিবন্ধন পরীক্ষার প্রিলিমিনারির ফলাফল প্রকাশ করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। সোমবার (১৩ জুন) বেলা আড়াইটায় ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে এনটিআরসিএ। স্কুল-২ পর্যায়ে পাসের হার ৩ দমিশক ২২ শতাংশ, স্কুল পর্যায়ে ২৯ দশমিক ৬৭ শতাংশ এবং কলেজ পর্যায়ে পাসের হার ২৭ দশমিক ৫৭ শতাংশ।

13th NTRCA preliminary Result 2016

স্কুল-২ পর্যায়ে ৬২০ জন, স্কুল পর্যায়ে ৯০ হাজার ৯৪৪ জন এবং কলেজ পর্যায়ে ৫৫ হাজার ৬৯৮ জন উত্তীর্ণ হয়েছেন। মোট উত্তীর্ণের সংখ্যা ১ লাখ ৪৭ হাজার ২৬২ জন। মোট পাসের হার ২৭ দশমিক ৯০ শতাংশ।  ওয়েবসাইটে (http://goo.gl/UzowMj) ও উত্তীর্ণ প্রার্থীদের টেলিটক মোবাইলে এসএমএসের মাধ্যমে ফল জানিয়ে দেয়া হবে। গত ১৩ মে অনুষ্ঠিত স্কুল-২ পর্যায়ে ২৩ হাজার ১৮১ জন, স্কুল পর্যায়ে ৩ লাখ ৫১ হাজার ৬৬ জন এবং কলেজ পর্যায়ে ২ লাখ ২৭ হাজার ৭৮৬ জনসহ মোট ৬ লাখ ২ হাজার ৩৩ জন প্রার্থী ছিলেন।

এর আগে বেসরকারি স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসায় অনলাইনে শিক্ষক নিয়োগের লক্ষ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগের জন্য আগামী ২৮ জুলাই পর্যন্ত এনটিআরসিএ’র ওয়েবসাইটে আবেদন করতে বলা হয়েছে।

এনটিআরসিএ জানায়, মেধার ভিত্তিতে শিক্ষক নিয়োগের সরকারি সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে এনটিআরসিএ রেজিস্টার্ড সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত শূন্য হবে এমন পদগুলোর জন্য প্রতিষ্ঠানসমূহকে চাহিদা প্রদান করতে হবে। ওয়েবসাইটের (http://goo.gl/UzowMj) মাধ্যমে ৬-২৫ জুন পর্যন্ত শূন্য পদের চাহিদা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে এনটিআরসিএ। প্রাপ্ত চাহিদা একত্র করে আগামী ৩০ জুন এনটিআরসিএ-এর ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে। আগ্রহী প্রার্থীরা আগামী ২৮ জুলাইয়ের মধ্যে সংশ্লিষ্ট পদে অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন।

দেশের সব বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মেধার ভিত্তিতে শিক্ষক নিয়োগের জন্য গত বছরের ৩০ ডিসেম্বর পরিপত্র জারি করে এনটিআরসিএ-কে প্রার্র্থী বাছাইয়ের দায়িত্ব দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। বেসরকারি স্কুল-কলেজে শিক্ষক নিয়েগের জন্য ২০০৫ সাল থেকে এনটিআরসিএ এই পরীক্ষা নেওয়া শুরু করে।

আগে একই দিন একসঙ্গে এক ঘণ্টা এমসিকিউ ও তিন ঘণ্টার লিখিত পরীক্ষা নেওয়া হলেও দ্বাদশ শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা থেকে এমসিকিউ ও লিখিত পরীক্ষা আলাদাভাবে নিচ্ছে এনটিআরসিএ। একই সঙ্গে সনদের মেয়াদ তিন বছর করা হয়। এই নিয়োগ প্রক্রিয়ায় প্রতিষ্ঠানগুলোর পরিচালনা পর্ষদের ক্ষমতা খর্ব করে মেধার ভিত্তিতে শিক্ষক নিয়োগ হবে বলে জানায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

পোষ্টটি লিখেছেন: sajib

এই ব্লগে 24 টি পোষ্ট লিখেছেন .

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *