গণিতের পুনর্মূল্যায়নে ১৪ হাজার শিক্ষার্থীর ফল পরিবর্তন

চট্টগ্রাম বোর্ডের অধীনে এ বছরের এসএসসি পরীক্ষার গণিত বিষয়ের সংশোধিত ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। এতে ১৪ হাজার ১৫৮ জন শিক্ষার্থীর গ্রেড পয়েন্ট পরিবর্তন হয়েছে। এর মধ্যে নতুন করে জিপিএ-৫ পেয়েছে আরও ৮৩৬ শিক্ষার্থী। সব মিলিয়ে চট্টগ্রাম বোর্ডে এখন জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৮ হাজার ৫০২ জন।

১৮ মে বুধবার বেলা ১১টার দিকে চট্টগ্রাম মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইটে সংশোধিত ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। সংশোধিত ফলাফলে নতুন করে উত্তীর্ণ হয়েছে তিন শিক্ষার্থী। সব বিষয়ে জিপিএ-৫ (গোল্ডেন জিপিএ) পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা বেড়েছে ১ হাজার ১১৫ জন। এখন চট্টগ্রাম বোর্ডে সব বিষয়ে জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৩ হাজার ১০৬ জন।
এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের এক সপ্তাহ পর গণিত বিষয়ে সংশোধিত ফলাফল প্রকাশ করল চট্টগ্রাম বোর্ড। ১১ মে এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়। এর পরদিন নগরের কয়েকটি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকেরা চট্টগ্রাম বোর্ড কার্যালয়ের সামনে গিয়ে গণিতের ফলাফল পুনর্নিরীক্ষণের দাবিতে বিক্ষোভ করে। তাদের অভিযোগ ছিল, গণিত বিষয়ের নৈর্ব্যক্তিক গ ও ঘ সেটের প্রশ্নপত্রের উত্তর মূল্যায়নের সময় ত্রুটির কারণে সঠিক ফলাফল আসেনি। এতে অনেক মেধাবী শিক্ষার্থী গণিতে জিপিএ-৫ থেকে বঞ্চিত হয়েছে। বোর্ডের পক্ষ থেকে ওই দিন শিক্ষার্থীদের গণিতের ফলাফল পুনর্মূল্যায়নের আশ্বাস দেওয়া হয়েছিল। বিক্ষোভ ছাড়াও গণিতের ফলাফল পুনর্নিরীক্ষণের দাবিতে মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন করে শিক্ষার্থী-অভিভাবকেরা।
চট্টগ্রাম বোর্ড সূত্র জানায়, গণিত বিষয়ে পরীক্ষা দেওয়া মোট ১ লাখ ৯ হাজার ১০৯ শিক্ষার্থীর উত্তরপত্র নতুন করে মূল্যায়ন করা হয়েছে। এতে ১৪ হাজার ১৫৮ জন শিক্ষার্থীর গণিত বিষয়ে নম্বর পরিবর্তন হয়েছে।

আগের ফলাফলে ত্রুটি থাকার বিষয়ে চট্টগ্রাম মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মোহাম্মদ মাহবুব হাসান বলেন, বাংলা ও ইংরেজি মাধ্যমের নৈর্ব্যক্তিক প্রশ্নপত্রের ক্রমিক নম্বর সব সময় একই থাকে। উত্তরপত্রও ওইভাবে মূল্যায়ন করা হয়। কিন্তু এবার গণিতের গ ও ঘ সেটের বাংলা ও ইংরেজি প্রশ্নপত্রের ক্রমিক নম্বরে ভুল ছিল। এটি আগে কারও চোখে পড়েনি। যার কারণে কম্পিউটারে উত্তরপত্র মূল্যায়নের পর বাংলা মাধ্যমের অনেক শিক্ষার্থীর ফলাফল ভুল এসেছে। এটি একটি অভাবিত কারিগরি ত্রুটি। শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের কাছ থেকে অভিযোগ পাওয়ার পর গণিতের সব পরীক্ষার্থীর উত্তরপত্র পুনর্মূল্যায়ন করা হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক চট্টগ্রাম বোর্ডের একজন কর্মকর্তা বলেন, প্রশ্নপত্র বিজি প্রেসে ছাপা হয়। ভুলটা ছাপার সময় হয়েছে। এ বিষয়ে বোর্ড থেকে বিজি প্রেসকে জানানো হবে।

-সূত্রঃ প্রথম আলো।

সংশোধিত ফলাফল দেখতে এই লিঙ্কে ক্লিক করুন।

উল্লেখ্য, সংশোধিত ফলাফল প্রকাশ করা হলেও টেলিটক সিম এর মাধ্যমে আবেদন করা পুনঃনিরীক্ষণকারীদের ফলাফল এখনো প্রকাশ করা হয়নি। পুনঃনিরীক্ষণ এর ফলাফল আগামী ০৮ জুন ২০১৬ তারিখে প্রকাশ করা হবে। প্রকাশ করার পর উক্ত ফলাফল চট্টগ্রাম বোর্ড এর ওয়েবসাইটের পাশাপাশি লেখাপড়া বিডি এর ফলাফল পুনঃমূল্যায়ন বিভাগ থেকে জানা যাবে।

পোষ্টটি লিখেছেন: লেখাপড়া বিডি ডেস্ক

লেখাপড়া বিডি ডেস্ক এই ব্লগে 985 টি পোষ্ট লিখেছেন .

লেখাপড়া বিডি বাংলাদেশের প্রথম শিক্ষা বিষয়ক বাংলা কমিউনিটি ব্লগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *