অনার্স ২য় বর্ষের ব্যবহারিক ও মৌখিক পরীক্ষা পরিচালনার নিয়মাবলী ও কেন্দ্রভিত্তিত ছাত্র-ছাত্রী তালিকা

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স ২য় বর্ষের ব্যবহারিক ও মৌখিক পরীক্ষা পরিচালনার নিয়মাবলী ও কেন্দ্রভিত্তিত ছাত্র-ছাত্রী তালিকা প্রকাশ হয়েছে। আপনাদের সুবিধার্থে ব্যবহারিক ও মৌখিক পরীক্ষা পরিচালনার নিয়মাবলী ও কেন্দ্রভিত্তিত ছাত্র-ছাত্রী তালিকা নিচে তুলে দেওয়া হলোঃ

ব্যবহারিক ও মৌখিক পরীক্ষা পরিচালনার নিয়মাবলীঃ
১৷ ব্যবহারিক ও মৌখিক পরীক্ষা পরিচালনার জন্য দুইজন অভ্যন্তরীণ পরীক্ষক থাকবেন৷ তন্মধ্যে একজন হবেন সংশ্লিষ্ট বিষয়ের বিভাগীয় প্রধান এবং অন্যজন অত্র বিষয়ের সিনিয়র শিক্ষক বিভাগীয় প্রধানের অনুপস্থিতিতে তাঁর স্থলে বিভাগের পরবর্তী সিনিয়র শিক্ষক দায়িত্ব পালন করবেন৷
২৷ ব্যবহারিক ও মৌখিক পরীক্ষা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোনীত বহি:পরীক্ষক ছাড়া গ্রহণ এবং বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক নির্ধারিত তারিখ ব্যতীত অন্য কোন তারিখে ব্যবহারিক ও মৌখিক পরীক্ষা গ্রহণ করা যাবে না৷ এখানে উল্লেখ্য যে, নির্ধারিত তারিখে পরীক্ষা গ্রহণ সম্ভব না হলে বহি:পরীক্ষকগণের সাথে আলোচনা করে তারিখ পূন:নির্ধারণ করা যাবে৷ এ ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগকে লিখিতভাবে অবহিত করতে হবে৷
৩৷ বিজ্ঞান বিভাগের ক্ষেত্রে ব্যবহারিক পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে মৌখিক পরীক্ষা গ্রহণ করতে হবে এবং প্রতি বিষয়ের প্রতি ব্যাচে ৩০ জন পর্যন্ত পরীক্ষার্থীর ব্যবহারিক পরীক্ষা নেয়া যাবে৷
৪৷ ব্যবহারিক পরীক্ষা পরিচালনাকারী শিক্ষকগণই মৌখিক পরীক্ষা গ্রহণ করবেন৷
৫৷ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েব সাইট
www.nu.edu.bd তে ব্যবহারিক ও মৌখিক পরীক্ষার কেন্দ্র তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে৷ কেন্দ্র তালিকায় উলেস্নখিত কলেজ/কলেজসমূহের শিক্ষার্থীদের নম্বর ফর্দ এবং হাজিরা পত্র TMIS এর কলেজ লগইন এ পাওয়া যাবে৷ নম্বর ফর্দ ও হাজিরা পত্র ডাউনলোড করে Print করে তালিকা অনুযায়ী ব্যবহারিক ও মৌখিক পরীক্ষা গ্রহণ করতে হবে৷ পরীক্ষা গ্রহণের সময় হাজিরা পত্রে পরীক্ষার্থীর স্বাক্ষর নিতে হবে৷ একজন শিক্ষার্থী যেন অন্য কোন পরীক্ষার্থীর ঘরে স্বাক্ষর না করে তা নিশ্চিত হবার জন্য পরীক্ষার্থীর প্রবেশপত্র ও রেজি:কার্ডে উল্লেখিত রেজি: নম্বর যাচাই করতে হবে৷ কোন ভাবেই নাম দেখে স্বাক্ষর গ্রহণ ও নম্বর প্রদান করা যাবে না৷ একই নামে একাধীক শিক্ষার্থী থাকে বিধায় এ সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে৷ কোন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত থাকলে হাজিরা পত্রে এবং নম্বর ফর্দে Absent লিখতে হবে৷ কোন ঘর খালি রাখা যাবে না৷

 ৬৷ পরীক্ষা গ্রহণের সাথে সাথে নম্বর ফর্দে প্রাপ্ত নম্বরের ঘরে নম্বর ইংরেজীতে লিখতে হবে৷ সকল পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা গ্রহণ শেষে নম্বর ফর্দের প্রতি পৃষ্ঠায় বহি:পরীক্ষক এবং আন্তঃপরীক্ষক স্বাক্ষর করবেন এবং TMIS ID লিখবেন৷

৭৷ পরীক্ষা শেষে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক সরবরাহকৃত সফট্ ওয়্যারে নম্বর এন্ট্রি করতে হবে৷ নম্বর এন্ট্রির ক্ষেত্রে সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে৷ সকল নম্বর এন্ট্রি শেষে Print Preview হতে Print Out নিয়ে তা মূল নম্বর পত্রের সাথে যাঁচাই করে কোন ভুল ভ্রান্তি থাকলে তা সংশোধন করতে হবে৷ অতপর Submit বাটনে Enter করে নম্বর Online এ প্রেরণ কাজ শেষ করে Print Out নিতে হবে৷ Submit করার পর কোন সংশোধন, সংযোজন বা বিয়োজন করা যাবে না বিধায় নম্বর প্রেরণের পূর্বে ভালভাবে যাচাই করে নিতে হবে৷ Print Out এ আন্তঃপরীক্ষক ও বহি:পরীক্ষক স্বাক্ষর করে ফটোকপি করে ১ কপি খামে করে ২ জন বহি:পরীক্ষক সঙ্গে নিয়ে যাবেন৷ এক কপি কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সংরক্ষণ করবেন৷ মূল কপি এবং ১ কপি Print Out উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, অনার্স ২য় বর্ষ, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, গাজীপুর-১৭০৪ এ ঠিকানায় পাঠাতে হবে৷ নম্বর প্রেরণের ডাটা এন্ট্রির কাজ সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রের অধ্যক্ষের লগইন থেকে বহিঃপরীক্ষকগণ সম্পন্ন করে কেন্দ্র ত্যাগ করবেন৷

৮৷ বিবিএ এবং বি এস এস কোর্সের শিৰার্থীদের টার্ম পেপার এ প্রাপ্ত নম্বর সংশ্লিষ্ট কলেজ কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা/অধ্যক্ষ বরাবরে প্রেরণ করবে৷ বহিঃপরীক্ষকগণ মৌখিক পরীক্ষার প্রাপ্ত নম্বরের সাথে টার্ম পেপারের নম্বর এন্ট্রি করবেন৷ সফট্ওয়্যার টার্ম পেপার ও মৌখিক পরীৰার নম্বর স্বয়ংক্রীয়ভাবে যোগ করে প্রাপ্ত নম্বর নির্ধারণ করবে৷ টার্ম পেপারের নম্বর এন্ট্রি জন্য সংশ্লিষ্ট কলেজে ডাটা প্রেরণ করা হবে এবং কলেজ Print কপি নিয়ে তাতে নম্বর প্রদান করে পরীক্ষা চলাকালে বহিঃপরীক্ষকের নিকট হস্তান্তর করবে৷ উল্লেখ্য চূড়ান্ত নম্বর প্রেরণের জন্য পৃথক কোন সফট্ওয়্যার প্রয়োজন হবে না৷ প্রেরীত ডাটার উপর চূড়ান্ত নম্বর এন্ট্রি করে Online এ পাঠানো যাবে৷
৯৷ ব্যবহারিক ও মৌখিক এবং টার্মপেপার পরীক্ষার নম্বরপত্রের একটি কপি অধ্যক্ষ-এর হেফাজতে সংরক্ষণ করতে হবে৷ প্রয়োজন হলে উক্ত নম্বর পত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষ তলব করলে তা সরবরাহ করতে হবে৷
১০৷ ব্যবহারিক ও মৌখিক এবং টার্মপেপার পরীক্ষার নম্বরপত্র প্রেরণের সময় সীলগালাকৃত প্যাকেট/খামের উপর অনার্স বিষয়ের নাম, ব্যবহারিক ও মৌখিক পরীক্ষার পত্রকোড, পরীক্ষা কোড ও প্রেরকের ঠিকানা স্পষ্টভাবে লিখতে হবে৷
১১৷ বহিঃপরীৰক ও অভ্যনত্মরীণ পরীক্ষকের বিশ্ববিদ্যালয়ের বিধি অনুযায়ী টিএ/ডিএ প্রদান করা হবে৷ কোন কারণে বহিরাগত পরীক্ষক হিসাবে দায়িত্ব পালন করা সম্ভব না হলে পত্র প্রাপ্তির ০৩ দিনের মধ্যে সংশিস্নষ্ট শাখার, উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, দ্বিতীয় বর্ষ অনার্স, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, গাজীপুর কে লিখিত ভাবে জানাতে হবে৷ (ফোনঃ ৯২৯১০৫২)
১২৷ পরীক্ষা শেষে বহিঃপরীক্ষক ও অভ্যনত্মরীণ পরীক্ষকগণের একটি তালিকা, পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ও অবস্থানকাল উল্লেখপূর্বক একটি প্রতিবেদন পরিচালক, অর্থ ও হিসাব, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, গাজীপুর-১৭০৪ ঠিকানায় প্রেরণ করতে হবে।

[অনার্স ২য় বর্ষের ব্যবহারিক ও মৌখিক পরীক্ষার কেন্দ্রভিত্তিত ছাত্র-ছাত্রী তালিকা ১ ডাউনলোড]

[অনার্স ২য় বর্ষের ব্যবহারিক ও মৌখিক পরীক্ষার কেন্দ্রভিত্তিত ছাত্র-ছাত্রী তালিকা ২ ডাউনলোড]

পোষ্টটি লিখেছেন: লেখাপড়া বিডি ডেস্ক

লেখাপড়া বিডি ডেস্ক এই ব্লগে 963 টি পোষ্ট লিখেছেন .

লেখাপড়া বিডি বাংলাদেশের প্রথম শিক্ষা বিষয়ক বাংলা কমিউনিটি ব্লগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *