২০১৮ সালের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার পরিবর্তিত সময়সূচি ও বিস্তারিত তথ্য

২০১৮ সালের আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড, মাদ্রাসা ও কারিগরি বোর্ডের অধীনে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার তত্ত্বীয় বিষয় সমূহের পরীক্ষা ২রা এপ্রিল থেকে শুরু হয়েছে যা ১৩ মে শেষ হওয়ার কথা থাকলেও ময়মনসিংহের একটি কেন্দ্রে ভুল করে ভূগোল দ্বিতীয়পত্রের প্রশ্নের প্যাকেট খোলায় পরীক্ষাটি ২৩ এপ্রিলের (সোমবার) পরিবর্তে স্থগিত করে ১৪ মে গ্রহণ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এরপর ব্যবহারিক পরীক্ষা ১৪ থেকে ২৩ মে পর্যন্ত চলবে।

এইচএসসি সমমান পরীক্ষার প্রশ্নের সমাধান, পরীক্ষার ফলাফল সংক্রান্ত সর্বশেষ আপডেট পাবেন এই লিংকে। 

এইচ এস সি পরীক্ষার ফলাফল ২০১৮ পাবেন এখানে

০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ তারিখ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ২০১৮ সালের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার সময়সূচী অনুমোদন করে প্রকাশ করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এরপর ২২ এপ্রিল পরিবর্তিত পরীক্ষার সময়সূচী ঘোষণা করা হয়। আপনাদের সুবিধার্থে উক্ত পরীক্ষার সময়সূচি নিচে তুলে দেওয়া হলোঃ

এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার সময়সূচি ২০১৮ ডাউনলোড

এইচএসসি পরীক্ষার পরিবর্তিত সময়সূচী

২০১৮ সালের এইচএসসি পরীক্ষার সময়সূচী

HSC Exam Routine 2018

HSC Exam Routine 2018
HSC Exam Routine 2018

২০১৮ সালের আলিম পরীক্ষার চূড়ান্ত সময়সূচী

Alim Exam Routine 2018
Alim Exam Routine 2018

২০১৮ সালের এইচএসসি (ভোকেশনাল) পরীক্ষার চূড়ান্ত সময়সূচী

HSC Vocational Routine 2018

২০১৮ সালের এইচএসসি (ব্যবসায় ব্যবস্থাপনা) পরীক্ষার চূড়ান্ত সময়সূচী

২০১৮ সালের ডিপ্লোমা ইন কমার্স পরীক্ষার চূড়ান্ত সময়সূচী

এবার ১৩ লাখ ১১ হাজার ৪৫৭ জন শিক্ষার্থী অংশ নেবেন; যা গতবারের চেয়ে এক লাখ ২৭ হাজার ৭৭১ জন বেশি। গত বছর এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ১১ লাখ ৮৩ হাজার ৬৮৬ জন শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছিলেন।

এবার ২ হাজার ৫৪১টি কেন্দ্রে ৮ হাজার ৯৪৩টি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী পরীক্ষা দেবেন। গতবারের তুলনায় এবার ৭৯টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং ৪৪টি কেন্দ্র বেড়েছে।

এইচএসসিতে ৮টি সাধারণ বোর্ডের অধীনে ১০ লাখ ৯২ হাজার ৬০৭ জন, মাদরাসা বোর্ডের অধীনে আলিমে এক লাখ ১২৭ জন, কারিগরি বোর্ডের অধীনে এইচএসসি বিএম-এ এক লাখ ১৭ হাজার ৭৫৪ জন এবং ডিআইবিএসে ৯৬৯ জন পরীক্ষা দেবেন।

এবার মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৬ লাখ ৯২ হাজার ৭৩০ জন ছাত্র এবং ৬ লাখ ১৮ হাজার ৭২৭ জন ছাত্রী।

ঢাকার বাইরে এবার বিদেশের সাতটি কেন্দ্রে ২৯৯ শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেবে, এরমধ্যে ১৫৯ জন ছাত্র এবং ১৪০ জন ছাত্রী।

এবার ২৮টি বিষয়ের ৫৪টি পত্রের পরীক্ষা সৃজনশীল পদ্ধতিতে পরীক্ষা হবে। গত বছরও ৫৪টি পত্রে সৃজনশীল প্রশ্নে পরীক্ষা হয়।

গত বছরের তুলনায় এবার পরীক্ষায় দুই দিন সময় কমিয়ে আনা হয়েছে। এবার তত্ত্বীয় পরীক্ষা ৪২ দিনে শেষ হবে। ২০১৬ সালে ৬৮ দিন তত্ত্বীয় পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষার্থীদের ভোগান্তি কমাতে পরীক্ষার গ্যাপ কমানোর কথা বলে আসছিলেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

এইচএসসি সমমান পরীক্ষা ২০১৮ এর নির্দেশনাঃ এবারও শুরুতে বহুনির্বাচনী (এমসিকিউ) অংশ এবং পরে রচনামূলক অংশের পরীক্ষা হবে। ৩০ নম্বরের বহুনির্বাচনী পরীক্ষার সময় ৩০ মিনিট এবং ৭০ নম্বরের সৃজনশীল পরীক্ষার সময় আড়াই ঘণ্টা। এমসিকিউ এবং সৃজনশীল অংশের মধ্যে কোনো বিরতি থাকবে না।

যেসব বিষয়ে ব্যবহারিক পরীক্ষা রয়েছে সেগুলোর ২৫ নম্বরের বহুনির্বাচনী পরীক্ষার সময় ২৫ মিনিট এবং সৃজনশীল অংশের জন্য দুই ঘণ্টা ৩৫ মিনিট সময় নির্ধারণ করা হয়েছে।

পরীক্ষার্থীরা সাধারণ ক্যালকুলেটর ব্যবহার করতে পারবে। তবে কোনো সায়েন্টিফিক ক্যালকুলেটর ব্যবহার করা যাবে না। পরীক্ষা কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ছাড়া অন্য কেউ মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবে না।

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী, সেরিব্রাল পলসি জনিত প্রতিবন্ধী ও যাদের হাত নেই এমন প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থী শ্রুতিলেখক নিয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন। এ ধরনের পরীক্ষার্থী ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য অতিরিক্ত ২০ মিনিট সময় বরাদ্দ থাকবে।

বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন (অটিস্টিক ও ডাউন সিনড্রোম বা সেরিব্রাল পলসি আক্রান্ত) পরীক্ষার্থীদের ৩০ মিনিট অতিরিক্ত সময় ও পরীক্ষার কক্ষে অভিভাবক বা শিক্ষক বা সাহায্যকারী নিয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ থাকবে।

প্রশ্নফাঁস রোধে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীসহ ২৮টি ইউনিট কাজ করবে। আর প্রশ্নফাঁসের তথ্য দিতে জরুরি সেবার ‘৯৯৯’ নম্বরে কল করা যাবে।

প্রশ্নফাঁস রোধে গত ২৯ মার্চ থেকে পরীক্ষা শেষ না হওয়া পর্যন্ত সব ধরনের কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। আর পরীক্ষা কেন্দ্রের ২০০ গজের মধ্যে পরীক্ষার্থী ছাড়া জনসাধারণের প্রবেশ নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)।

পোষ্টটি লিখেছেন: আল মামুন মুন্না

আল মামুন মুন্না এই ব্লগে 573 টি পোষ্ট লিখেছেন .

আল মামুন মুন্না, বাংলাদেশের প্রথম শিক্ষা বিষয়ক বাংলা কমিউনিটি ব্লগ সাইট "লেখাপড়া বিডি"র প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক হিসেবে নিয়োজিত আছেন। সম্প্রতি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন যশোর সরকারী এম. এম. কলেজ থেকে ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিষয় নিয়ে বি.বি.এ অনার্স সম্পন্ন করে আজম খান সরকারী কমার্স কলেজে এমবিএ করছেন।

7 comments

  1. সব কলেজের সিট প্ল্যান কোথায় পাওয়া যাবে? হেল্প প্লিয

  2. উপকৃত হলাম* আপনাকে ধন্যবাদ*

  3. মোঃমোস্তা রানা জুয়েল

    প্রশ্ন পত্র ফাঁস হবে না তো আবার?

  4. মোঃ শাহীন আহম্মেদ

    ধন্যবাদ ভাই পোষ্টটা দেওয়ার জন্য কিন্তু ডাউনলোড করতে পারলে আরো ভাল হত!!

  5. ২০১৮ সালের এইস.এস.সি মানবিক পরিক্ষার সময়সূচী আলাদা দেওয়া যাবে

    • আজ শুনলাম HSC পরিক্ষার সময় পরিবর্তন করা হয়েছে।
      পরিক্ষা নাকি ৬ রা এপ্রিল শুরু হবে। প্লিজ একটু জানাবেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

− 3 = 4