২০১৭ সালের এসএসসি সমমান পরীক্ষার সময়সূচি সহ বিস্তারিত তথ্য জেনে নিন এখান থেকে

২০১৭ সালের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার আট সাধারণ বোর্ডের এসএসসি, মাদ্রাসা বোর্ডের দাখিল ও কারিগরি বোর্ডের এসএসসি ও দাখিল ভোকেশনাল পরীক্ষা শুরু হচ্ছে ২রা ফেব্রুয়ারি। ২ মার্চ পর্যন্ত এসএসসির তত্ত্বীয় পরীক্ষা চলবে। অপরদিকে ৪-১১ মার্চের মধ্যে ব্যবহারিক পরীক্ষা নেওয়া হবে।

আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড এবং মাদ্রাসা ও কারিগরি বোর্ডের অধীনে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় এবার গত বছরের তুলনায় পরীক্ষার্থী বেড়েছে এক লাখ ৩৫ হাজার ৯০ জন। এবার ১৭ লাখ ৮৬ হাজার ৬১৩ জন শিক্ষার্থী এ পরীক্ষায় অংশ নেবে।

২৮ হাজার ৩৪৪টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা তিন হাজার ২৩৬টি কেন্দ্রে পরীক্ষা দেবে। বিদেশে কেন্দ্র রয়েছে আটটি, যেখানে শিক্ষার্থী সংখ্যা ৪৪৬ জন।

আমদের পেইজে লাইক দিন গ্রুপে যোগ দিন

আটটি সাধার বোর্ডে এসএসসিতে মোট পরীক্ষার্থী ১৪ লাখ ২৫ হাজার ৯০০ জন। এরমধ্যে ছাত্র সাত লাখ দুই হাজার ২৯৯ জন এবং ছাত্রীর সংখ্যা সাত লাখ ২৩ হাজার ৬০১ জন।

মাদ্রাসা বোর্ডের অধীনে দাখিল পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থী দুই লাখ ৫৬ হাজার ৫০১ জন এবং কারিগরি বোর্ডের অধীনে এসএসসিতে (ভোকেশনাল) এক লাখ চার হাজার ২১২ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেবে।

সকালের পরীক্ষা ১০টা থেকে ১টা পর্যন্ত ও বিকালের পরীক্ষা দুপুর ২টা থেকে ৫টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। সকালের পরীক্ষা ক্ষেত্রে সকাল সাড়ে নয়টায় শিক্ষার্থীদের হলে প্রবেশ করতে হবে। নয়টা ৩৫মিনিটে উত্তরপত্র দেওয়া হবে। ২০১৭ সালের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার সময়সূচি আপনাদের সুবিধার্থে নিচে তুলে দেওয়া হলোঃ

এসএসসি সমমান পরীক্ষার সময়সূচি ২০১৭ ডাউনলোড

এসএসসি (মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট) পরীক্ষার সময়সূচি ২০১৭

SSC Exam Routine 2017 

SSC Practical Exam Routine 2017

দাখিল পরীক্ষার সময়সূচি ২০১৭

Dakhil exam Routine 2017

এসএসসি ভোকেশনাল ফাইনাল পরীক্ষার সময়সূচি ২০১৭

SSC Vocational Exam Routine 2017 

দাখিল ভোকেশনাল ফাইনাল পরীক্ষার সময়সূচি ২০১৭

Dakhil Vocational Exam Routine 2017

গত বছর এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ১৬ লাখ ৬১ হাজার ৫২৩ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিলেও এবার এক লাখ ৩৫ হাজার ৬১৩ জন শিক্ষার্থী বেড়েছে।

মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে এবার ছাত্রের সংখ্যা নয় লাখ ১০ হাজার ৫০১ জন এবং ছাত্রীর সংখ্যা আট লাখ ৭৬ হাজার ১১২ জন।

গত বছরের মতো এবারও মাধ্যমিকে এমসিকিউ অংশের পরীক্ষা আগে অনুষ্ঠিত হবে। পরে সৃজনশীল অংশের পরীক্ষা হবে। এবার এসএসসিতে বাংলা দ্বিতীয় পত্র এবং ইংরেজি প্রথম ও দ্বিতীয় পত্র ছাড়া সকল বিষয়ে সৃজনশীল প্রশ্নে পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে। এ বছর হতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি এবং ক্যারিয়ার শিক্ষা নামে দুটি নতুন বিষয় অন্তর্ভুক্ত হয়েছে।

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী, সেরিব্রাল পালসি জনিত প্রতিবন্ধী এবং যাদের হাত নেই এমন প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থী স্ক্রাইব (শ্রুতি লেখক) সঙ্গে নিয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। এ ধরনের পরীক্ষার্থীদের এবং শ্রবণ প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থীদের জন্য অতিরিক্ত ২০ মিনিট সময় বৃদ্ধি করা হয়েছে।

প্রতিবন্ধী (অটিস্টিক, ডাউন সিনড্রোম, সেরিব্রাল পালসি) পরীক্ষার্থীদের অতিরিক্ত ৩০ মিনিট সময় বৃদ্ধিসহ শিক্ষক, অভিভাবক বা সাহায্যকারীর বিশেষ সহায়তায় পরীক্ষা প্রদানের সুযোগ দেয়া হয়েছে।

পরীক্ষার ফল প্রকাশের সাত দিনের মধ্যে এসএসসি ও সমমান ফলাফল পুনঃমূল্যায়ন এর জন্য টেলিটক প্রিপেইড সিম ব্যবহার করে এসএমএসের মাধ্যমে আবেদন করা যাবে।

পোষ্টটি লিখেছেন: আল মামুন মুন্না

আল মামুন মুন্না এই ব্লগে 553 টি পোষ্ট লিখেছেন .

আল মামুন মুন্না, বাংলাদেশের প্রথম শিক্ষা বিষয়ক বাংলা কমিউনিটি ব্লগ সাইট "লেখাপড়া বিডি"র একজন সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে কাজ করছেন। সম্প্রতি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন যশোর সরকারী এম. এম. কলেজ থেকে ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিষয় নিয়ে বি.বি.এ অনার্স সম্পন্ন করছেন ।

Ads by Wizards

5 comments

  1. Mcq age neyar siddanto Ta khub valo hoyche..Amader ekhaneu exam er somoy Sir ra agei mcq correction kore student der bole dei .Ei jonno student ra poDar agroho hariye fele.

  2. ধন্যবাদ,ssc পরীক্ষার রুটিন প্রকাশের জন্য। আমি ২০১৬ তে পরিক্ষার্থী।আমার জন্য দোয়া করবেন সকলে।

  3. ২০১৭সলের দা‌খিল গ‌নিত সা‌জেশন প্রক্ শ করুন

  4. ধন্যবাদ লেখাটা দেওয়ার জন্য, আর সকল এসএসসি সমমানের পরীক্ষার্থী ভাইবোনদের প্রতি রইল শুভ কামনা

  5. ভাইয়া আপনার লেখা পোষ্টটি খুব সুন্দর লাগলো। কিন্তু আমি কথা বলতে চাই সেটা হলো দাখিল পরিক্ষার ২০১৮ সালের একটা রুটিন নামানোর ডাউনলোডের সহজ একটা লিংক দিন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।