কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে অনার্স প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষার বিস্তারিত তথ্য

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ১৭ ও ১৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭ তারিখ থেকে টেলিটক প্রিপেইড মোবাইল ফোনের মাধ্যমে আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়ে ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ তারিখ পর্যন্ত চলবে। এবারও আবেদন ফি ৫৫০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। চলুন জেনে নেওয়া যাক ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি সংক্রান্ত বিস্তারিত সব তথ্য…

আবেদনের সময়সীমাঃ ০৭ সেপ্টেম্বর থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ তারিখ পর্যন্ত (দিন-রাত যেকোন সময়, এমনকি বন্ধের দিনও আবেদন করা যাবে)৷

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে বিভিন্ন অনুষদ-এ ভর্তির জন্য নিম্নোক্ত যোগ্যতা সম্পন্ন ছাত্র-ছাত্রীদের নিকট থেকে ভর্তি পরিক্ষার অংশগ্রহণের জন্য আবেদন আহ্বান করা হয়েছে।

আবেদনের যোগ্যতা: ২০১৬/২০১৭ সালে অনুষ্ঠিত এইচএসসি/আলিম/সমমানের পরিক্ষায় এবং ২০১৪/২০১৫ সালে অনুষ্ঠিত এসএসসি/দাখিল/সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ছাত্র-ছাত্রীরা নিম্ন বর্ণিত শর্ত পূরণ সাপেক্ষে আবেদন করতে পারবেন৷

১. অনুষদ ও বিষয়:

বিজ্ঞান অনুষদ ও প্রকৌশল অনুষদ (A ইউনিট): গণিত, কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং (সিএসই), ইনফরমেশন এন্ড কমিউনিকেশন টেকনোলজি (আইসিটি), পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, পরিসংখ্যান এবং ফার্মেসী৷

কলা ও মানবিক অনুষদ , সমাজ বিজ্ঞান অনুষদ এবং আইন অনুষদ (B ইউনিট): বাংলা, ইংরেজি, অর্থনীতি, লোক প্রশাসন, নৃবিজ্ঞান, প্র ত্নতত্ত্ব, আইন বিভাগ এবং গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ৷

বিজনেস স্টাডিজ অনুষদ (C ইউনিট): ব্যবস্থাপনা শিক্ষা, একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস (এআইএস), মার্কেটিং, ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং৷

২. শর্তাবলী:

বিজ্ঞান/সমমান শাখা থেকে উত্তীর্ণ ছাত্র-ছাত্রীদের এস.এস.সি ও এইচ.এস.সি/সমমান (চতুর্থ বিষয়সহ) উভয় পরীক্ষায় মোট জিপিএ ৬.৫০ এবং উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে ন্যূনতম জিপিএ ৩.০০ পেতে হবে৷

  • A ইউনিট – এর বিষয়সমূহের মধ্যে গণিত, সিএসই, আইসিটি, পদার্থবিজ্ঞান ও পরিসংখ্যান বিভাগে ভর্তির জন্য এইচ.এস.সি পর্যায়ে গণিত-এ জিপি ৩.০০ থাকতে হবে৷
  • ফার্মেসীতে ভর্তিচ্ছুকদের উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় রসায়ন ও জীববিদ্যায় জিপিএ ৩.৫০ ও গণিতে জিপি ২.৫০থাকতে হবে। তাছাড়া SSC ও HSC (চতুর্থ বিষয় ছাড়া) উভয় পরীক্ষায় ন্যূনতম জিপিএ ৩.০০ পেতে হবে৷

মানবিক/সমমান শাখা থেকে উত্তীর্ণ ছাত্র-ছাত্রীদের এস.এস.সি ও এইচ.এস.সি/সমমান (চতুর্থ বিষয়সহ) উভয় পরীক্ষায় মোট জিপিএ ৬.০০ এবং উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে ন্যূনতম জিপিএ ৩.০০ পেতে হবে৷

  • ইংরেজিতে ভর্তিচ্ছুদের উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় ইংরেজিতে জিপি (A-) এবং অর্থনীতিতে ভর্তিচ্ছুদের উচ্চমাধ্যমিকে অর্থনীতি,গণিত অথবা পরিসংখ্যান বিষয়ের যে কোন একটি থাকতে হবে৷
  • B ইউনিটে বিজ্ঞান/বাণিজ্য/সমমান বিভাগের ছাত্র-ছাত্রীদের আবেদন করতে এস.এস.সি ও এইচ.এস.সি/সমমান (চতুর্থ বিষয়সহ) উভয় পরীক্ষায় মোট জিপিএ ৬.০০ এবং উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে ন্যূনতম জিপি ৩.০০ পেতে হবে৷

ব্যবসায় শিক্ষা/ডিপেস্নামা-ইন-কমার্স/কারিগরি/সমমান শাখা থেকে উত্তীর্ণ ছাত্র-ছাত্রীদের এস.এস.সি ও এইচ.এস.সি/সমমান (চতুর্থ বিষয়সহ) উভয় পরীক্ষায় মোট জিপিএ ৬.০০  পেতে হবে৷

  • C ইউনিটে বিজ্ঞান/সমমান বিভাগের ছাত্র-ছাত্রীদের আবেদন করতে এস.এস.সি ও এইচ.এস.সি/সমমান (চতুর্থ বিষয়সহ) উভয় পরীক্ষায় মোট জিপিএ ৬.৫০ এবং উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে ন্যূনতম জিপিএ ৩.০০ পেতে হবে এবং মানবিক/সমমান বিভাগের ছাত্র-ছাত্রীদের আবেদন করতে এস.এস.সি ও এইচ.এস.সি/সমমান (চতুর্থ বিষয়সহ) উভয় পরীক্ষায় মোট জিপিএ ৬.০০ এবং উভয় পরীক্ষায় পৃথকভাবে ন্যূনতম জিপিএ ৩.০০ পেতে হবে৷

জি.সি.ই লেভেল – ‘ও’ লেভেল পরীক্ষায় ৫টি বিষয়ে এবং ‘এ’ লেভেল পরীক্ষায় ন্যূনতম ২টি বিষয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে এবং উভয় লেভেলের মোট ৭ টি বিষয়ের মধ্যে ৪ টি বিষয়ে কমপক্ষে ‘বি’ গ্রেড প্রাপ্ত হতে হবে৷

ইংরেজি মাধ্যমে পরীক্ষা দিতে ইচ্ছুক পরীক্ষার্থীদের সংশ্লিষ্ট ইউনিটের ইউনিট আহ্বায়ক বরাবর ভর্তি পরীক্ষার কমপক্ষে ১৫ দিন আগে স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে লিখিতভাবে আবেদন জানাতে হবে৷

৩. আবেদনের নিয়মাবলীঃ  (মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ভর্তির আবেদন )

ভর্তি পরীক্ষায় আবেদনের জন্য একটি প্রি পেইড টেলিটক মোবাইল ফোন থেকে ১৬২২২ নম্বরে SMS করতে হবে৷ আবেদনকারীর টেলিটক প্রিপেইড মোবাইলে পর্যাপ্ত পরিমাণ টাকা থাকলে তা থেকে ভর্তি পরীক্ষার নির্দিষ্ট ফি কেটে নিয়ে একটি SMS এর মাধ্যমে সাথে সাথেই একটি User ID ও একটি Password জানিয়ে দেয়া হবে৷ এই ser ID ও Password সযত্নে সংরক্ষণ করতে হবে৷ একবার SMS করে আবেদন করলে তা আর প্রত্যাহার করা যাবে না৷

৩.১) একটি প্রিপেইড টেলিটক মোবাইল ফোনের মাধ্যমে মেসেজ অপশনে COU লিখে, স্পেস দিয়ে HSC বোর্ডের নামের প্রথম তিনটি অক্ষর, স্পেস দিয়ে HSC পরীক্ষার রোল নম্বর, স্পেস দিয়ে HSC পাশের সাল লিখে, SSC স্পেস দিয়ে SSC বোর্ডের নামের প্রথম তিনটি অক্ষর, স্পেস দিয়ে SSC পরীক্ষার রোল নম্বর, স্পেস দিয়ে SSC পাশের সাল লিখে, স্পেস দিয়ে কাঙ্খিত গ্রুপের কীওয়ার্ডটি লিখে ১৬২২২ নম্বরে SMS করতে হবে৷

উদাহরণ:

উদাহরণটি কুমিল্লা বোর্ডের৷ এখানে ১২৩৪৫৬ এর জায়গায় আবেদনকারীর নিজের HSC এবং SSC পরীক্ষার রোল নম্বর দিতে হবে৷ কেউ ২০১৬ সালে HSC পাশ করে থাকলে ২০১৭ এর জায়গায় ২০১৫ লিখতে হবে৷ একইভাবে B গ্রুপে আবেদনের জন্য A এর জায়গায় B লিখতে হবে, B গ্রুপে আবেদনের জন্য A এর জায়গায় B, অন্যান্য বোর্ডের জন্য কুমিল্লা ( COM) এর জায়গায় যথাক্রমে সিলেট (SYL), বরিশাল (BAR), চট্টগ্রাম (CHI), ঢাকা (DHA), দিনাজপুর (DIN), যশোর (JES), রাজশাহী (RAJ), মাদরাসা (MAD), কারিগরী শিক্ষা বোর্ড (TEC) লিখতে হবে৷

৩.২) উপরের SMS টি পাঠানোর পর সকল তথ্য সঠিক হলে ফিরতি SMS এ আবেদনকারীর নাম, কাঙ্খিত গ্রুপ, ভর্তি র ফি ও একটি PIN জানিয়ে সম্মতি চাওয়া হবে৷ তখন ১৬২২২ নম্বরে আরেকটি SMS পাঠিয়ে সম্মতি জানাতে হবে৷ সম্মতি জানানোর জন্য প্রথম COU, তারপর স্পেস দিয়ে YES, স্পেস দিয়ে PIN, স্পেস দিয়ে আবেদনকারীর যোগাযোগের জন্য যে কোন একটি মোবাইল নম্বর লিখে ১৬২২২ নম্বরে SMS করতে হবে৷

উদাহরণঃ COU<space>YES<space>654321<spac>0lXXXXXXXXX

এখানে ১২৩৪৫৬ এর জায়গায় আবেদনকারীর নিজ নিজ PIN টি বসাতে হবে৷ উলেস্নখ্য যে, সম্মতি জানিয়ে SMS পাঠালেই কেবল আবেদনকারীর মোবাইল ফোন থেকে ভর্তি পরীক্ষার ফি কেটে নেয়া হবে, অন্যথায় কোন ফি কাটা হবে না৷ আবেদনকারীর টেলিটক মোবাইলে পর্যাপ্ত পরিমাণ টাকা থাকলে তা থেকে ভর্তি পরীক্ষার নির্দিষ্ট ফি কেটে নিয়ে একটি এসএমএস এর মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট ইউনিটের প্রবেশপত্রের জন্য একটি User ID ও Password দেয়া হবে। একবার এসএমএস করে আবেদন করলে তা প্রত্যাহার করা যাবে না। User ID ও Password সযত্নে নিজ দায়িত্বে সংরক্ষণ করতে হবে।

৩.৩) “O”/“A” Level এর ক্ষেত্রে আবেদনকারীকে উপরের নিয়ম অনুযায়ী ১৬২২২ নম্বরে SMS করতে হবে৷ এক্ষেত্রে বোর্ডের নামের জায়গায় GCE লিখতে হবে৷ উদাহরণ:

এখানে ১২৩৪৫৬ এর জায়গায় আবেদনকারীর A Level এর নিজ নিজ Candidate নম্বরটি বসাতে হবে এবং কেউ ২০১৫ সালে A-লেভেল পাশ করে থাকলে ২০১৬ এর জায়গায় ২০১৫ লিখতে হবে৷ একইভাবে B গ্রুপে আবেদনের জন্য A এর জায়গায় B লিখতে হবে , C গ্রুপে আবেদনের জন্য A এর জায়গায় C লিখতে হবে৷

৩.৪) কোটায় ছাত্রছাত্রী ভর্তি সম্পর্কিতঃ
নিম্নোক্ত কোটায় ভর্তিচ্ছু ছাত্রছাত্রী আবেদন করতে উপরের নিয়ম অনুযায়ী ১৬২২২ নম্বরে SMS করতে হবে৷
মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কোটা (FFQ), উপজাতি কোটা (TQ), অ-উপজাতি কোটা (NTQ), শারীরিক প্রতিবন্ধী (PDQ), পোষ্য (WQ), বিকেএসপি কোটা (BKSPQ)।

উদাহরণ:

COU<space>COM<space>123456<space>2015<space>COM<space>123456<space>2013<space>A<space>FFQ

একইভাবে B গ্রুপে আবেদনের জন্য A এর জায়গায় B লিখতে হবে, C গ্রুপে আবেদনের জন্য A এর জায়গায় C লিখতে হবে ৷

৩.৫) প্রবেশপত্র ডাউনলোডঃ

আবেদনকারীকে প্রবেশপত্র (Admit Card) ডাউনলোডের জন্য SMS এর মাধ্যমে জানানো হবে৷ প্রবেশপত্রের জন্য প্রথমে এক কপি পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি (৩০০x৩০০ পিক্সেল, সর্বোচ্চ ১০০ kb ) ও আবেদনকারীর স্বাক্ষর (৩০০x৮০ পিক্সেল, সর্বোচ্চ ৬০ kb) স্ক্যান করে ২টি আলাদা ফাইল তৈরি করে রাখতে হবে৷ প্রবেশপত্রের এক কপি পরীক্ষার হলে নিজের কাছে রাখতে হবে এবং অন্য কপি পরীক্ষার হলে সংশ্লিষ্ট পরিদর্শকের নিকট জমা দিতে হবে।

প্রবেশপত্র (Admit Card) ডাউনলোড করতে http://cou.teletalk.com.bd ওয়েবসাইটে গিয়ে SMS এর মাধ্যমে আবেদন করার সময় প্রাপ্ত সংশ্লিষ্ট ইউনিটের User ID এবং Password ইনপুট দিতে হবে৷ ইনপুট সঠিক হলে ছবি ও স্বাক্ষর আপলোড করার অপশন পাওয়া যাবে৷

সফলভাবে উক্ত প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে প্রবেশপত্র (Admit Card) প্রিন্ট অপশন পাওয়া যাবে৷ তখন আবেদনকৃত ইউনিট এর ০২ (দুই) কপি প্রবেশপত্র (Admit Card) প্রিন্ট নিতে হবে৷ প্রার্থী পরীক্ষার হলে ০২(দুই) কপি প্রবেশপত্র নিয়ে আসবে যার ০১(এক) কপি নিজের কাছে রাখবে এবং অন্য কপি পরীক্ষার্থী হলে সংশ্লিষ্ট পরিদর্শকের নিকট জমা দিবে৷

প্রবেশপত্রে ছাত্র/ছাত্রীদের ইউনিট, নাম, রোল নম্বর, পরীক্ষা কেন্দ্র, ভবন, কক্ষ নম্বর, পরীক্ষার তারিখ অ সময় লেখা থাকবে। প্রতিটি ইউনিটের জন্য একই নিয়মে আলাদাভাবে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে হবে৷

ছবি, স্বাক্ষর আপলোড প্রক্রিয়া একবার সম্পন্ন করার পর আর পরিবর্তন করা যাবে না৷

ভর্তি পরীক্ষার দিনে আবেদনকারীর করণীয়:
(ক) ভর্তি পরীক্ষার দিন প্রত্যেক ইউনিটের জন্য দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবির পিছনে নাম ও প্রদত্ত ভর্তি পরীক্ষার রোল নম্বর লিখে অবশ্যই সঙ্গে নিয়ে আসতে হবে৷

(খ) ভর্তি পরীক্ষা এক ঘন্টা সময়ের ১০০ নম্বরের MCQ পদ্ধতিতে গ্রহণ করা হবে৷ প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ নম্বর কাটা যাবে৷
ভর্তি পরীক্ষায় মোট ১০০টি প্রশ্নের মান বন্টন হবে নিম্নরূপ:

A ইউনিট- ইংরেজি- ১৫, বাংলা- ১০, পদার্থবিজ্ঞান- ২৫, রসায়ন- ২৫ এবং গণিত/জীব বিজ্ঞান- ২৫৷

B ইউনিট- ইংরেজি- ২৫, বাংলা- ২৫, সাধারণ জ্ঞান- ১০ এবং কলা ও সামাজিক বিজ্ঞান বিষয়াবলী/বিজ্ঞান বিষয়াবলী/ব্যবসায় শিক্ষা বিষয়াবলী- ৪০৷
C ইউনিট- ইংরেজি- ২০, বাংলা- ১০, হিসাববিজ্ঞান- ২৫, ব্যবসায় পরিচিতি ও ব্যাংকিং- ২৫, Analytical Ability & Critical Reasoning- ২০৷ বিজ্ঞান ও মানবিক বিভাগ থেকে C ইউনিটে- পরীক্ষার্থীদের ইংরেজি – ২০, বাংলা- ১০, সাধারণজ্ঞান- ১০ এবং গণিত- ৬০ নম্বর (বিজ্ঞান বিভাগ থেকে উত্তীর্ণ ছাত্র-ছাত্রীদের) অথবা অর্থনীতি/পরিসংখ্যান- ৬০ নম্বর (মানবিক বিভাগ থেকে উত্তীর্ণ ছাত্র-ছাত্রীদের) উত্তর করতে হবে৷

ভর্তি পরীক্ষার তারিখ ও সময়সূচি:

ভর্তি পরীক্ষার তারিখ:  —– —  A ইউনিট এর পরীক্ষা ও —  B ইউনিট এর পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে এবং —– —-  C ইউনিট এর পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। 

ইউনিট ভিত্তিক ভর্তি পরীক্ষার তারিখ সময়সূচি, স্থান, আসন বিন্যাস ও সংশ্লিষ্ট তথ্য যথাসময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটের পাশাপাশি লেখাপড়া বিডি থেকে জানা যাবে৷


কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় ওয়েবসাইট:
www.cou.ac.bd

Comilla University Help Line: ০১৫৫৭-৩৩০৩৮১ / ০১৫৫৭-৩৩০৩৮২

বি: দ্র: ভর্তি সংক্রান্ত  যে কোনো নিয়ম-নীতির পরিবর্তন, সংশোধন, সংযোজন ও বিয়োজনের অধিকার কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সংরক্ষণ করে৷

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে অনার্স ১ম বর্ষে ভর্তি বিজ্ঞপ্তি

[বিজ্ঞপ্তিটি ডাউনলোড করুন]

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে অনার্স ১ম বর্ষে ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ হলে তা এখানে আপলোড করা হবে। সহজে ফলাফল জানতে নিয়মিত চোখ রাখুন লেখাপড়া বিডি’তে।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল পাবেন এই লিঙ্কে।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষার আসন বিন্যাসঃ

এ ইউনিট এর আসন বিন্যাস ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

বি ইউনিট এর আসন বিন্যাস ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন।

সি ইউনিট এর আসন বিন্যাস দেখতে এখানে ক্লিক করুন।

ভর্তি-সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ওয়েবসাইটের পাশাপাশি লেখাপড়াবিডি.কম থেকেও জানা যাবে। এছাড়া, ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির বিস্তারিত তথ্য লেখাপড়াবিডি.কম এর ভর্তি তথ্য বিভাগ থেকে জানা যাবে।

পোষ্টটি লিখেছেন: ফারিদ মুস্তাকিম

ফারিদ মুস্তাকিম এই ব্লগে 5 টি পোষ্ট লিখেছেন .

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।