মানসিক দক্ষতার সিলেবাস নিয়ে বিশদ আলোচনা

গাণিতিক যুক্তি এবং মানসিক দক্ষতার সিলেবাস এক না

অনেকেই এটা ভেবে ভূল করেণ যে, মানসিক দক্ষতা এবং গাণিতিক যুক্তির সিলেবাস একই। প্রকৃতপক্ষে এই দুটি বিষয়ের সিলেবাস সম্পূর্ণ আলাদা। তবে যারা, গণিতে শক্তিশালী বিসিএস পরীক্ষায় তাদের মানসিক দক্ষতা এর সিলেবাসের কিছু কিছু অংশে ভালো করার সম্ভাবনা আছে। ভাষা, বানান এগুলোও এই সিলেবাসে আছে যেগুলোতে ভাল করার জন্য বেশী বেশী পড়াশোনা করার কোন বিকল্প নেই। ছোটবেলায় যারা গণিতে দুর্বল ছিলেন তাদেরও হতাশ হওয়ার কিছু নেই, পড়ালেখা করলেই হবে।

কি আছে মানসিক দক্ষতার সিলেবাস এ

এই প্রশ্ন যৌক্তিক যে সিলেবাসে কি আছে। আমার মনে হয় বিসিএস পরীক্ষার্থীদের সবারই সিলেবাস ভালো করে জানা উচিত। সচেতন পরীক্ষার্থীরা এমনিতেই জানেন। তবে অসচেতন পরীক্ষার্থীদের সংখ্যাটা যেহেতু অনেক, তাই তাদের জন্য নিচের ভিডিওটি-

না দেখে থাকলে দেখে নিন। আর যারা ভিডিও দেখার চেয়ে পড়তে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন তাদের জন্য পিএসসি প্রদত্ত মানসিক দক্ষাতা র সিলেবাসটি বলে দেই-

  1. ভাষাগত যৌক্তিক বিচার
  2. বানান ও ভাষা
  3. সংখ্যাগত ক্ষমতা
  4. যান্ত্রিক দক্ষতা
  5. স্থানাংক সম্পর্ক
  6. সমস্যা ও সমাধান

এই বিষয়গুলোই পিএসসির সিলেবাসে আছে।

মানসিক দক্ষতার সিলেবাস ব্যবচ্ছেদ

গাণিতিক যুক্তির মত এই অংশেও ১৫ মার্কস এর প্রশ্ন হবে। উপরে উল্লিখিত ৬ টি বিষয়ের উপর এই ১৫ মার্কস এর প্রশ্ন হবে। প্রতিটি বিষয়ে ২ টি থেকে ৩ টি প্রশ্ন পরীক্ষাতে থাকবে। সব ক্ষেত্রে পুরোপুরি সিলেবাস অনুসরণ করা হয় না, তাই এর ব্যত্যয় ঘটতেই পারে। মোটামুটিভাবে ধরে নেয়া যায় ২-৩ টি প্রশ্ন প্রতিটাতেই থাকবে।

ভাষাগত যৌক্তিক বিচার অংশে- ৩৫ তম তে এসেছে  _ ছাড়া রোগ প্রতিরোধ করা অসম্ভব

বানান ও ভাষা অংশে- ৩৭ তম বিসিএস এ এসেছে কোনটি অগ্নির সমার্থক শব্দ নয়, একেবারেই বাংলা ভাষার প্রশ্ন, ৩৬ তম তে এসেছে কোন বানানটি শুদ্ধ

সংখ্যাগত ক্ষমতা- ৩৫ তম লিখিত তে এসেছে নিচের সিরিজের নবম সংখ্যাটি কত?

যান্ত্রিক দক্ষতা- COMBINATION শব্দটি আয়নায় কেমন দেখাবে(৩২ তম বিসিএস এ এই ধরণের অন্য একটি প্রশ্ন এসেছে)

স্থানাংক সম্পর্ক- নিচের চিত্রে মোট কতটি ত্রিভূজ আছে(৩৫ তম)

সমস্যা ও সমাধান- ঘড়িতে যখন আটটা বাজে তখন ঘন্টার কাটা আর মিনিটের কাটার মধ্যে কোণ কত ডিগ্রী?

উপরে যেসব প্রশ্নের কথা বললাম ঐ সব বিষয়ের প্রশ্নের ধরণ এই রকম।

মানসিক দক্ষতা নিয়ে শেষ কথা

সায়েন্সের ছাত্রছাত্রীরা সাধারণত গণিতে ভাল হয়, তাদের বিশ্লেষণী ক্ষমতা বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই অন্যদের চেয়ে ভাল হয়(ব্যতিক্রম কখনোই উদাহরণ হতে পারে না)। তবে, বিসিএস পরীক্ষায় গাণিতিক যুক্তি কিংবা, মানসিক দক্ষতা কোনটাতেই তারা কখনোই আটকাবে না, যারা পড়াশোনা করে।

লেখাটি আর আগে প্রকাশিতঃ মানসিক দক্ষতা বিসিএস সিলেবাস বিশ্লেষণ

পোষ্টটি লিখেছেন: tutorialsbangla

এই ব্লগে 10 টি পোষ্ট লিখেছেন .

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।