নবম-দশম শ্রেণীর হিসাববিজ্ঞানঃ এসএসসি নৈর্ব্যত্তিক পরীক্ষা প্রস্তুতিঃ একাদশ অধ্যায় পণ্যের ক্রয়মূল্য, উৎপাদন ব্যয় ও বিক্রয়মূল্য

সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়ে নবম-দশম শ্রেণীর হিসাববিজ্ঞানঃ এসএসসি নৈর্ব্যত্তিক পরীক্ষা প্রস্তুতিঃ একাদশ অধ্যায় পণ্যের ক্রয়মূল্য, উৎপাদন ব্যয় ও বিক্রয়মূল্য এর বহুনির্বাচনী বা নৈর্ব্যত্তিক সাজেশন লিখতে যাচ্ছি। আশা করি নবম-দশম শ্রেণীর ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য উপকারী হবে।

আর হ্যাঁ, ইউনিভার্সিটি এডমিসন পরীক্ষায় হিসাববিজ্ঞান বিষয়ে প্রস্তুতিতেও এই পোস্ট টি হেল্পফুল হবে। বই পড়তে চাইলে ঘুরে আসতে পারেন Bangla Books PDF থেকে।

নবম-দশম শ্রেণীর হিসাববিজ্ঞানঃ এসএসসি নৈর্ব্যত্তিক পরীক্ষা প্রস্তুতিঃ অধ্যায়  একাদশ

পণ্যের ক্রয়মূল্য, উৎপাদন ব্যয় ও বিক্রয়মূল্য

  • পণ্যের ক্রয়মূল্য বলতে বোজায়- পণ্যের প্রকৃত দাম ও ক্রয়সংক্রান্ত প্রত্তক্ষ খরচ।
  • যে খরচ পণ্য ক্রয় বা উৎপাদনের সাথে সরাসরি জড়িত থাকে তাকে বলে প্রত্যক্ষ খরচ।
  • প্রত্যক্ষ খরচের উদাহরণঃ পণ্যের বহন খরচ, পণ্য ক্রয়, মজুরি, শুল্ক ইত্যাদি।
  • পরোক্ষ খরচের উদাহরণঃ বেতন, বিজ্ঞাপন, বাড়ি ভাড়া, কমিশন, অফিস খরচ, ষ্টেশনারী, বিক্রয় পরিবহণ ইত্যাদি।
  • যেসকল খরচ পণ্য ক্রয় বা উৎপাদনের সাথে সরাসরি জড়িত নয়, তাকে বলে পরোক্ষ খরচ।
  • পণ্যের বিক্রয়মূল্য হতে মোট মুনাফা বাদ দিলে তাকে বলা হয়- বিক্রীত পণ্যের মূল্য।
  • বিক্রয়কৃত পণ্যের পরিবহণ খরচকে বলা হয়- বহির্মুখী বহন।
  • বিক্রয়মূল্য নিরূপণ করা হয়- মোট ব্যয়ের সাথে লাভ যোগ করে।
  • কোন পণ্য উৎপাদন বা অর্জন ও সেবা প্রদানের জন্য যে মূল্য ত্যাগ করা হয় তাকে বলা হয়- কষ্ট(cost)
  • কোন পণ্য বা সেবা প্রদান করতে বা সৃষ্টি করতে যে খরচ হয় তাকে বলে- উৎপাদন ব্যয়
  • পণ্যের ক্রয়মূল্যের সাথে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ খরচসমূহ যোগ করলে পাওয়া যায়- মোট উৎপাদন ব্যয়।
  • প্রত্যক্ষ কাঁচামালসমূহঃ বই উৎপাদনে কাগজ, আসবাবপত্র তৈরিতে কাঠ, কাপড়ের জন্য সুতা, চট উৎপাদনে পাট, চিনির জন্য আখ, সুতা উৎপাদনের জন্য তুলা।
  • পরোক্ষ কাঁচামালসমূহঃ শার্ট তৈরির জন্য সুতা ও বোতাম, আসবাবপত্র তৈরিতে পেরেক, জুতা তৈরিতে আঠা ইত্যাদি।
  • কারখানা উপরিব্যয় বা উৎপাদন উপরিব্যয়ঃ পরোক্ষ কাঁচামাল, পরোক্ষ মজুরি, কারখানার বিদ্যুৎ খরচ, যন্ত্রপাতির অবচয় ইত্যাদি।
  • প্রশাসনিক উপরিব্যয়ঃ অফিসের বেতন, অফিস ভাড়া, আপ্যায়ন খরচ, আসবাবপত্রের অবচয়, মনিহারি খরচ, টেলিফোন খরচ, বিদ্যুৎ খরচ ইত্যাদি।
  • বিক্রয় উপরিব্যয়ঃ বিক্রয় দোকান ভাড়া, বিক্রয়কারীর বেতন, শো-রুমের খরচ, বিজ্ঞাপন, বহিঃপরিবহণ খরচ, অনাদায়ী পাওনা, ভ্রমন খরচ ইত্যাদি।
  • প্রত্যক্ষ কাঁচামাল + প্রত্যক্ষ মজুরি + প্রত্যক্ষ খরচঃ মুখ্য ব্যয়।
  • মোট ব্যয় + কারখানা উপরিব্যয়ঃ উৎপাদন ব্যয়।
  • উৎপাদন ব্যয় + অফিস ও বিক্রয় উপরিব্যয়ঃ মোট ব্যয়।
  • মোট ব্যয় + মুনাফাঃ বিক্রয় মূল্য।
  • হিসাবরক্ষণের মুখ্য উদ্দেশ্য হলো- প্রকৃত লাভ-লোকসান নির্ণয় করা।
  • ‘Cost’ শব্দটির অর্থ- ব্যয়।
  • ‘Finished Goods’ অর্থ- বিক্রয় উপযোগী পণ্য/ তৈরিকৃত পণ্য।
  • ‘Feasibility Study’ অর্থ- সম্ভাব্যতা যাচাই।
  • উৎপাদন ব্যয়ে হিসাববিজ্ঞানের প্রাথমিক উদ্দেশ্য হলো- উৎপাদন ব্যয় নির্ণয় করা।

My Blog: Bangla Book

পোষ্টটি লিখেছেন: সালাউদ্দিন ব্যাপারী

এই ব্লগে 29 টি পোষ্ট লিখেছেন .

সালাউদ্দিন ব্যাপারী পেশায় একজন এডুক্যাশনাল ব্লগার এবং শিক্ষক। তিনি হিসাববিজ্ঞান বিষয়ে বিবিএ এবং এমবিএ সম্পন্ন করেছেন। লিখতে ভালোবাসেন। শিক্ষামূলক বিষয় ভালোমানের লেখা দিয়ে ফুটিয়ে তোলাই তার শখ এবং লক্ষ্য।


পোস্টটি শেয়ার করে অন্যদেরকেও জানার সুযোগ দিন। ফেইসবুকে শিক্ষা বিষয়ক তথ্য পেতে আমাদের গ্রুপে যোগ দিন অথবা পেইজ এ লাইক দিয়ে রাখুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।