সিদ্দিকুরকে সহযোগিতা দিয়েছেন ৭ কলেজের শিক্ষার্থীরা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধিভুক্ত সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে শাহবাগে পুলিশের হামলায় আহত তিতুমীর কলেজ শিক্ষার্থী সিদ্দিকুর রহমানের চোখের চিকিৎসার জন্য ২০ হাজার টাকা সহযোগিতা দিয়েছে ফেসবুক গ্রুপে কাজ করা অধিভুক্ত সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা।

আজ সোমবার সকালে চক্ষু বিজ্ঞান ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালে গিয়ে সহযোগিতা করেন শিক্ষার্থীরা।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, দুর্জয়, আবিদ, আশানুর, প্রকাশ, তুহিন, মুহিব, শ্রাবণ, নাদিয়া, সুরমা, ইমু, পুষ্প, তৃণা, মুক্তা, তৌফিক, তুষার, জুবায়ের, ইমরান, মামুন ও সাইদ।

এদিকে সিদ্দিকুর রহমানের চোখের উন্নত চিকিৎসার জন্য সম্পূর্ণ সরকারি খরচে তাকে ভারতের চেন্নাই নেয়া হচ্ছে বলে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে ।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সিদ্দিকুরের চিকিৎসার আর্থিক খরচ বহনসহ সার্বিক দায়িত্ব সরকার নিয়েছে। সে অনুযায়ী স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম সোমবার সকালে সিদ্দিকুরকে সুস্থ করতে সর্বোচ্চ চিকিৎসা সেবা প্রদানের নির্দেশ দিলে জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. গোলাম মোস্তফা এ ব্যবস্থা নেন।

এর আগে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বলেন, চোখের চিকিৎসার জন্য সিদ্দিকুর রহমানকে সরকারি খরচে বিদেশে পাঠানো হবে। তিনি বলেন, ‘সিদ্দিকুরকে সর্বোচ্চ চিকিৎসা সেবা দেয়া হচ্ছে।

এদিকে তার চোখের দৃষ্টি শক্তি ফিরে পাওয়ার সম্ভাবনা কম বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। সিদ্দিকুরের দুই চোখে অস্ত্রপাচার শেষে এ কথা জানান তারা।

এ বিষয়ে চক্ষু বিজ্ঞান ইন্সটিটিউট ও হাসপাতালের গ্লুকোমা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. ইফতেখার মোহাম্মদ মুনির বলেন, আঘাতে সিদ্দিকুরের দুটি চোখ মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। দৃষ্টিশক্তির সঙ্গে চোখের ভেতরে থাকা কর্নিয়া, জেলসহ নানা বিষয় যুক্ত। সিদ্দিকুরের ডান চোখ থেকে সেসব বের হয়ে এসেছে। আর বাম চোখের ভেতরে সব এলোমেলো হয়ে গেছে। আমরা ডান চোখ অপারেশন করেছি। বাম চোখ ওয়াশ করেছি।

তিনি আরও বলেন, তার যে ধরনের ইনজুরি রয়েছে তাতে দৃষ্টিশক্তি ফিরে পাওয়ার সম্ভাবনা খুব কম। সম্ভব না বললেই চলে। সে কতটা দেখতে পারবেন তা নিয়ে আমরা সন্দিহান। পরবর্তীতে তার আরও একাধিক অপারেশন দরকার হবে।

গত বৃহস্পতিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভূক্ত সাতটি কলেজের শিক্ষার্থীরা রুটিনসহ আরও ৭ দফা দাবিতে শাহবাগের জাতীয় জাদুঘরের সামনে মানববন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করছিলেন। একপর্যায় শিক্ষার্থীদের সরে যেতে বলে পুলিশ। শিক্ষার্থীরা না সরলে তাদের খুব কাছ থেকে টিয়ারশেল ছুড়ে ছাত্রভঙ্গ করে দেয় তারা। এসময় সিদ্দিকুর দুই চোখে আঘাত পান।

পোষ্টটি লিখেছেন: লেখাপড়া বিডি ডেস্ক

লেখাপড়া বিডি ডেস্ক এই ব্লগে 793 টি পোষ্ট লিখেছেন .


পোস্টটি শেয়ার করে অন্যদেরকেও জানার সুযোগ দিন। ফেইসবুকে শিক্ষা বিষয়ক তথ্য পেতে আমাদের গ্রুপে যোগ দিন অথবা পেইজ এ লাইক দিয়ে রাখুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।