৩৫তম বিসিএস’র তৃতীয় দফায় মৌখিক পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি, সময়সূচী ও বিস্তারিত নির্দেশনা জেনে নিন এখান থেকে

৩৫তম বিসিএস পরীক্ষা ২০১৪-এর লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মধ্যে তৃতীয় দফায় মৌখিক পরীক্ষার সময়সূচি ঘোষণা করেছে সরকারি কর্মকমিশন (পিএসসি)।

৩রা এপ্রিল ২০১৬ তারিখ থেকে সাধারণ, সাধারণ ও কারিগরি/পেশাগত এবং কারিগরি/পেশাগত ক্যাডারের প্রার্থীদের নিয়ে তৃতীয় দফায় মৌখিক পরীক্ষা শুরু হয়ে ১২ই এপ্রিল ২০১৬ তারিখ পর্যন্ত চলবে। সময়সূচীতে উল্লেখিত দিনগুলোতে সকাল ১০ টায় আগারগাঁওয়ে পিএসসি’র প্রধান কার্যালয়ে মৌখিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

কোন প্রার্থী নির্ধারিত তারিখ ও সময়ে মৌখিক পরীক্ষার বোর্ডে উপস্থিত না হলে উক্ত প্রার্থীর মৌখিক পরীক্ষা আর গ্রহণ করা হবেনা বলেও অবহিত করা হয়েছে। প্রকাশিত সময়সূচী ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় ডাউনলোড লিঙ্ক নিচে দেওয়া হলোঃ

[৩৫তম বিসিএস’র তৃতীয় দফায় মৌখিক পরীক্ষার সময়সূচী ও নির্দেশনা ডাউনলোড]

[৩৫তম বিসিএস’র দ্বিতীয় দফায় মৌখিক পরীক্ষার সময়সূচী ও নির্দেশনা ডাউনলোড]

[৩৫তম বিসিএস’র ১ম দফায় মৌখিক পরীক্ষার সময়সূচী ও নির্দেশনা ডাউনলোড]

[প্রবেশপত্র ও বিপিএসসি ফরম ৩ ডাউনলোড]

 

এর আগে ৩৫তম বিসিএস এর লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের মধ্যে সাধারণ ক্যাডার প্রার্থীদের ১ম দফায় মৌখিক পরীক্ষা  ৩১ জানুয়ারি ২০১৬ তারিখ থেকে শুরু হয়েছে যা ০৩ মার্চ ২০১৬ তারিখ পর্যন্ত চলবে।

তারপর ৬ মার্চ থেকে সাধারণ ও কারিগরি/পেশাগত ক্যাডারের প্রার্থীদের নিয়ে দ্বিতীয় দফায় মৌখিক পরীক্ষা শুরু হয়, যা ২১ মার্চ পর্যন্ত চলে।

গত ১৩ জানুয়ারি ৩৫তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশ করে পিএসসি, যাতে উত্তীর্ণ হয়েছেন ৬ হাজার ৮৮ জন।

লিখিত পরীক্ষায় সাধারণ ক্যাডারে ৩ হাজার ২২৮ জন, সাধারণ এবং কারিগরি/পেশাগত ক্যাডারে ১ হাজার ৮৬১ জন, কারিগরি/পেশাগত ক্যাডারে ৯২৬ জন উত্তীর্ণ হন।

গত বছরের ১ সেপ্টেম্বর থেকে ৩৫তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষা শুরু হয়, শেষ হয় ১০ অক্টোবর।

সর্বোচ্চ দুই লাখ ৪৪ হাজার ১০৭ জন প্রার্থী নিয়ে গত বছরের ৬ মার্চ ৩৫তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

বিসিএস বিধিমালা সংশোধনের পর নতুন নিয়ম ও সিলেবাসে ২০০ নম্বরে দুই ঘণ্টার প্রিলিমিনারি পরীক্ষা নেওয়া হয়। প্রতিটি শুদ্ধ উত্তরের জন্য ছিল এক নম্বর। আর ভুল উত্তরের জন্য শূন্য দশমিক ৫০ নম্বর কাটা হয়। আগে ১০০ নম্বরে এক ঘণ্টা প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হতো।

ওই বছরের ৮ এপ্রিল প্রিলিমিনারি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করে পিএসসি, যাতে উত্তীর্ণ হন ২০ হাজার ৩৯১ জন। তারা লিখিত পরীক্ষায় অংশ নেন।

বিভিন্ন ক্যাডারে এক হাজার ৮০৩ জন প্রার্থী নিতে ২০১৪ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে পিএসসি। এর মধ্যে সাধারণ ক্যাডারে ৪৫৫ জন, প্রফেশনাল/টেকনিক্যাল ক্যাডারে ৪৮৪ জন, সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারে ৮২৯ জন, বিশেষায়িত শিক্ষা ক্যাডারে ৩৫ জনকে নিয়োগ দেওয়ার কথা।

বিসিএস এর সর্বশেষ সব আপডেট ও টিপস পেতে ক্লিক করুন লেখাপড়া বিডির এই লিঙ্কে

পোষ্টটি লিখেছেন: আল মামুন মুন্না

আল মামুন মুন্না এই ব্লগে 532 টি পোষ্ট লিখেছেন .

আল মামুন মুন্না, বাংলাদেশের প্রথম শিক্ষা বিষয়ক বাংলা কমিউনিটি ব্লগ সাইট "লেখাপড়া বিডি"র একজন সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে কাজ করছেন। বর্তমানে ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিষয় নিয়ে বি.বি.এ অনার্স করছেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন যশোর সরকারী এম. এম. কলেজে।


পোস্টটি শেয়ার করে অন্যদেরকেও জানার সুযোগ দিন। ফেইসবুকে শিক্ষা বিষয়ক তথ্য পেতে আমাদের গ্রুপে যোগ দিন অথবা পেইজ এ লাইক দিয়ে রাখুন

One comment

  1. ধন্যবাদ শেয়ার করার জন্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.