রুটিন পরিবর্তনের দাবিতে বৃন্দাবন সরকারী কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের মানব বন্ধন।।

Manob Bondhon

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় স্নাতক প্রথম বর্ষের(শিক্ষাবর্ষ১৪-১৫) ৬ জানুয়ারী ঘোষিত রুটিন পরিবর্তনের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন বৃন্দাবন সরকারী কলেজের শিক্ষার্থীরা।
উক্ত কলেজের সকল বিভাগের শিক্ষার্থীরা সকাল ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত কলেজের সামনে অবস্থান কর্মসূচী পালন করেন।
এ সময় গণিত বিভাগের ছাত্র সুদীপ বলেন “১দিন সময়ের ভিতরে কোন বিষয়ই ভালভাবে রিভিশন দেয়া সম্ভব নয়।”
গণিত বিভাগের ছাত্র সোহাগ ”প্রতি দুই বিষয়ের মধ্যে ৩-৫দিন করে বন্ধ দেয়ার দাবি জানায়”। গণিতের ছাত্র শামীম বলেন ”ক্যালকুলাসের ২৪টি অধ্যায় কোনভাবেই ১দিনে রিভিশন দেয়া সম্ভব নয়।”
পদার্থ বিজ্ঞানের ছাত্রী রাফি বলেন তাদের ননমেজর মৌলিক গণিতের পূর্বে কমপক্ষে ৪দিন বন্ধ দরকার। রসায়নের ছাত্র পলাশ দেবনাথ বলেন “পূজোর দিনে পরীক্ষা দিতে পারব না। সে ঐ দিনের পরীক্ষা বাতিলের জোরালো দাবি জানায়”।
অর্থনীতি বিভাগের জামাল বলেন ৬-১৫ ফেব্রুয়ারী তারিখের মধ্যে ৫টি পরীক্ষা কখনো দেয়া সম্ভব না।
এছাড়া অনার্স প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের রুটিন পরিবর্তনের দাবিকে সম্মতি জানিয়ে বক্তৃতা রাখেন মাস্টার্স প্রথম বর্ষের ছাত্র আব্দুল হাকিম, চতুর্থ বর্ষের ছাত্র খলিল এবং দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র আক্তারুজ্জামান।
আব্দুল হাকিম অনার্স প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের পূর্ণাঙ্গ প্রস্তুতি নিয়ে পরীক্ষা দেয়ার সুবিধার্থে শীঘ্রই রুটিন পরিবর্তনের দাবি জানায়।
সমাপণি বক্তৃতায় গণিত প্রথম বর্ষের ছাত্র হোসাইন আহমেদ বলেন ”পরীক্ষা পেছনো  নয়, প্রতি দুই বিষয়ের মধ্যে পর্যাপ্ত সময় চাই। তিনি শীঘ্রয়ই অনার্স প্রথম বর্ষের এই অযৌক্তিক রুটিন পরিবর্তন করে শিক্ষার্থীদের কল্যাণে সংশোধিত রুটিন দেয়ার দাবি জানায় জাতীয় বিশ্বাবিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে।
১ঘণ্টা অবস্থান কর্মসূচি ও আলোচনা পর্ব শেষে শিক্ষার্থীরা কলেজ থেকে হবিগঞ্জ প্রেসক্লাব পর্যন্ত র্যালী করেন

পোষ্টটি লিখেছেন: হোসাইন আহমেদ

হোসাইন আহমেদ এই ব্লগে 0 টি পোষ্ট লিখেছেন .

আশাহত মানব সন্তান!!

পোস্টটি শেয়ার করে অন্যদেরকেও জানার সুযোগ দিন। ফেইসবুকে শিক্ষা বিষয়ক তথ্য পেতে আমাদের গ্রুপে যোগ দিন অথবা পেইজ এ লাইক দিয়ে রাখুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.